ঝালকাঠিতে ভ’য়া মুক্তিযোদ্ধার গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

0
80
ঝালকাঠিতে ভ’য়া মুক্তিযোদ্ধার গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

রতন আচার্য্য,ঝালকাঠি প্রতিনিধি : ঝালকাঠিতে মো. সুলতান আহম্মেদ দুয়ারী নামে এক প্রতারক প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা সুলতান হোসেন মাঝির ওসমানি সনদ কেড়ে নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে রাষ্ট্রীয় সুযোগ সুবিধা ভোগ করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি ধরা পড়ায় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় তাঁর গেজেট ও সনদ বাতিল করে দেয়। প্রতারক সুলতান দুয়ারীকে গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে আজ শনিবার সকালে ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন করা হয়েছে। প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা সুলতান হোসেন মাঝির পরিবারসহ গ্রামের মানুষ এ কর্মসূচিতে অংশ নেয়। মানববন্ধনে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার পরিবার প্রতারক সুলতান দুয়ারীর দীর্ঘ দিন ধরে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা আত্মসাতকরা প্রায় ১০ লাখ টাকা ফেরত দেওয়ার দাবি জানান। এ সময় তাঁর ছেলে মিরাজ মাঝি ও ভাগিনা মো. সোহেল হাওলাদার উপস্থিত ছিলেন। ফরিদা বেগমের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ভাগিনা মো. সোহেল হাওলাদার।

লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করা হয়, সুলতান হোসেন মাঝির কাছ থেকে মুক্তিযোদ্ধার সনদ নিয়ে ভাতা পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে সুলতান আহমেদ দুয়ারী নিজের নামে মুক্তিযোদ্ধার ভাতা করিয়ে নেন। মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করে রাষ্ট্রীয় সকল সুযোগ সুবিধা ভোগ করেছেন তিনি। স্ত্রী সন্তানকে মুক্তিযোদ্ধা কোঠায় চাকরি দিয়ে নানা সুবিধা নিয়েছেন। এমনকি মিথ্যা তথ্য দিয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের ঘরের জন্যও আবেদন করেন তিনি। অবশেষে প্রতারক সুলতান দুয়ারীর মুক্তিযোদ্ধা সনদ ও গেজেট বাতিল করা হয়। গত বছরের ২২ নভেম্বর মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপসচিব রথিন্দ্রনাথ দত্ত সাক্ষরিত চিঠিটি ঝালকাঠি জেলা প্রশাসনের কাছে পাঠানো হয়। এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিতে বলা হয়েছে।

প্রতারণার মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধার সনদ গ্রহণকারী সুলতান হোসেন দুয়ারীর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা সুলতান হোসেন মাঝিকে গেজেটভুক্ত করে ভাতা প্রদানের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দা ও তাঁর পরিবার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here