বেনাপোলে শিক্ষক ও সংবাদকর্মীদের সাথে সুর্যের হাসি ক্লিনিকের সমন্বয় সভা

0
52
বেনাপোলে শিক্ষক ও সংবাদকর্মীদের সাথে সুর্যের হাসি ক্লিনিকের সমন্বয় সভা

শেখ কাজিম উদ্দিন, বেনাপোলঃ বেনাপোলে স্বাস্থ্য সস্মত চিকিৎসা ও রেজিষ্ট্রারভ্ক্তু ডাক্তার দ্বারা চিকিৎসা সেবা নেওয়ার জন্য স্থানীয় শিক্ষক ও সংবাদকর্মীদের সাথে পরামর্শমূলক সমন্বয় সভা করেছেন সুর্যের হাসি নেটওয়ার্ক ক্লিনিক।

শনিবার বেলা সাড়ে ১০ টার সময় বেনাপোল পৌরসভার দুর্গাপুর রোডে সুর্যের হাসি ক্লিনিকের কার্যালয়ে এ সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন সুর্যের হাসি নেটওয়ার্ক ক্লিনিক বেনাপোল শাখার ব্যবস্থাপক কামাল আহম্মেদ। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঐতিহ্যবাহী বেনাপোল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সিনিয়র সহকারী শিক্ষক মোখলেছুর রহমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেনাপোল সিনিয়র এম ইউ মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা ইলিয়াছ হোসেন, বেনাপোল বন্দর প্রেস ক্লাবের সভাপতি শেখ কাজিম উদ্দিন, সাধারন সম্পাদক আজিজুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক আনিছুর রহমান, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক রাশেদুজ্জামান রাসেল, দৈনিক যায়যায় দিনের বেনাপোল প্রতিনিধি জি, এম আশরাফ হোসেন, সানরাইজ পাবলিক স্কুলের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম, বেনাপোল নবদিগন্ত স্কুলের প্রধান শিক্ষক আবু তালহা প্রমুখ।

এসময় প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক সিভিল সার্জন ও সুর্যের হাসি ক্লিনিকের কনসালটেন্ড আলমগীর হোসেন। বিশেষ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন মা ও শিশু এবং মেডিসিন বিষয়ে অভিজ্ঞ স্পেশালিষ্ট তথা সূর্যের হাসি ক্লিনিক বেনাপোল শাখার ডাক্তার সোমাইয়া বিনতে ইসলাম নাইস।

এসময় ডাক্তার সোমাইয়া বিনতে ইসলাম নাইস বলেন, আমরা আজ কিডনি ও চোখসহ নানা ধরনের জটিল রোগে ভুগছি। যার একটি মাত্র কারণ কোয়াক ডাক্তারের অপচিকিৎসা। এজন্য আমাদের সচেতন হতে হবে। সচেতনার অভাবে গ্রামের রোগিরা যাচ্ছে কোয়াক ডাক্তারের কাছে। তারা দিচ্ছে অধিক মাত্রার এন্ট্রিবায়োটিক ওষুধ। যার ফলে আমাদের কিডনি ও চোখসহ নানা ধরণের জটিল রোগ ধরে ফেলছে। তাই সকলকে সচেতন হতে হবে। রেজিষ্ট্রারভুক্ত এমবিবিএস ডাক্তার দ্বারা চিকিৎসা সেবা নিতে হবে।

তিনি আরো বলেন, বেনাপোল পৌরশহর একটি ঘনবসতির শহর। এখানকার মানুষের টাকা আছে কিন্তু এরা কোথায় কিভাবে সেবা নিতে হবে সে ব্যাপারে সচেতন নয়। এর ফলে আজো বেনাপোল শহরে গড়ে উঠেনি কোন হাসপাতাল বা ভালোমানের চিকিৎসা কেন্দ্র।

সুর্যের হাসি ক্লিনিক সম্পর্কে তিনি বলেন, এখানে রয়েছেন দু’জন রেজিষ্টার(এমবিবিএস) ডাক্তার, মা ও শিশু স্বাস্থ্য সেবা, আল্ট্রাসনোগ্রাম সেবা এবং সকল প্রকার প্যাথলজিক্যাল সেবা। এখানে সুলভ মূল্যে রোগী দেখা ও চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়। হতদরিদ্র রোগীদের জন্য রয়েছে বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here