আদালতে যাচ্ছেন ট্রাম্প, গ্রেফতার হওয়ার শঙ্কা

0
123
WASHINGTON, DC - MARCH 01: U.S. President Donald Trump participates in a meeting with leaders of the steel industry at the White House March 1, 2018 in Washington, DC. Trump announced planned tariffs on imported steel and aluminum during the meeting, with details to be released at a later date. (Photo by Win McNamee/Getty Images)

খবর৭১:সাবেক এক পর্ন তারকার সঙ্গে সম্পর্কের ঘটনা ধামাচাপা দিতে গোপনে অর্থ দেওয়ার মামলায় অভিযোগের মুখোমুখি হওয়ার জন্য আদালতে উপস্থিত হতে সোমবার নিউ ইয়র্কে পৌঁছেছেন ট্রাম্প।

গত বৃহস্পতিবার ম্যানহাটনের গ্র্যান্ড জুরি আদালত ট্রাম্পকে অভিযুক্ত করে।

সাবেক এ প্রেসিডেন্ট মঙ্গলবার দুপুরে (স্থানীয় সময় সোয়া দুইটায়) ম্যানহ্যাটনের আদালতে বিচারক জন মারচেনের সামনে হাজির হবেন। তার আগে ম্যানহ্যাটন ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নির কার্যালয়ে তার আত্মসমর্পণ করার কথা রয়েছে। বিচারকের সামনে হাজির হওয়ার আগে তার আঙ্গুলের ছাপ নেওয়া হতে পারে। খবর বিবিসির।

বিবিসির ওয়াশিংটন সংবাদদাতা অ্যান্টনি যারকার বলছেন, যখন সাবেক প্রেসিডেন্টের আঙুলের ছাপ নেয়া হবে এবং আদালতে তা নথিভুক্ত করার প্রক্রিয়া শেষ হবে, তখন এর অর্থ দাঁড়াবে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং তিনি হেফাজতে রয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক বা বর্তমান প্রেসিডেন্টদের মধ্যে ট্রাম্প (৭৬) হচ্ছেন প্রথম ব্যক্তি যিনি ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত হয়েছেন।

ম্যানহটনের ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি এলভিন ব্র্যাগের দফতর জানিয়েছিল, নিয়ম অনুযায়ী ট্রাম্পকে আদালতে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করতে হবে আর আদালতে হাজির না হলে তাকে গ্রেফতার করা হতে পারে।

তার আত্মসমর্পণ ঘিরে ব্যাপক অস্থিরতা দেখা দিতে পারে আশঙ্কায় পুলিশ একদিন আগে থেকেই ম্যানহ্যাটন আদালত ও এর আশেপাশের এলাকাগুলোতে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে। ধাতব ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে ফেলা হয়েছে ট্রাম্প টাওয়ার। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে আদালত প্রাঙ্গণের সামনের রাস্তা।

ইয়াহু নিউজ জানিয়েছে, ব্যবসায়িক রেকর্ড নিয়ে মিথ্যাচার করার জন্য ট্রাম্প ৩৪টি অভিযোগের মুখোমুখি হতে পারেন। ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলোর কোনোটিই একটি অপরাধের চেয়ে কম গুরুতর বিবেচিত হয়নি বলে বিষয়টি সম্পর্কে জ্ঞাত একটি সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে ইয়াহু।

আদালতে হাজির হওয়ার সময় ভিডিও, ছবি তোলা বা রেডিও সম্প্রচারের বিরোধিতা করেছেন ট্রাম্পের আইনজীবীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here