শহরের সবার করোনা টেস্ট করবে ভিয়েতনাম

0
27

খবর৭১ঃ হাইব্রিড করোনা শনাক্তের পর হো চি মিন সিটির শহরের সব নাগরিককে বাধ্যতামূলক করোনা টেস্ট করবে ভিয়েতনাম। শহরটিতে প্রায় এক কোটি ৩০ লাখ মানুষের বসবাস।

শনিবার কয়েকজনের শরীরে করোনার ভারতীয় ও ব্রিটিশ ভ্যারিয়েন্টের সংমিশ্রণ নতুন আরেকটি ‘হাইব্রিড ভ্যারিয়েন্ট’ ধরা পড়ার পরদিনই এ পদক্ষেপ নিল ভিয়েতনাম।

একই সঙ্গে নাগরিকদের সামাজিক দূরত্ব মানাতে বিধিনিষেধে আনা হয়েছে আরও কড়াকড়ি। হাইব্রিড কোভিড যেন ছড়াতে না পারে সেজন্য নেওয়া হয়েছে এসব উদ্যোগ। খবর এএফপির।

ভিয়েতনাম কর্তৃপক্ষ বলছে, ৩১ মে থেকে আগামী ১৫ দিন পর্যন্ত কঠোরভাবে মানতে হবে সামাজিক দূরত্বের বিষয়টি। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে দোকানপাট ও সব ধরনের রেস্টুরেন্ট। স্থগিত রাখা হয়েছে ধর্মীয় যে কোনো বড় অনুষ্ঠান।

হো চি মিন সিটিতে ১০ জনের বেশি মানুষকে একসঙ্গে জমায়েত হতে নিষেধ করা হয়েছে। তবে খুব জরুরি প্রয়োজনে পাঁচজন একসঙ্গে জমায়েত হবে পারবেন।

প্রতিদিন এক লাখ করে করোনা টেস্ট করলে পুরো শহরের বাসিন্দাদের জন্য সময় লাগবে তিন মাসেরও বেশি। এ ছাড়া দেশটিতে করোনা টিকা নেওয়ার হারও কম।

মোট জনসংখ্যার মাত্র ১ শতাংশ নিয়েছে কোভিড-১৯ টিকা। হাইব্রিড কোভিড ভাইরাসের মূল ধরনটির মতোই বয়স্ক এবং অন্যান্য অসুস্থতা আছে এমন মানুষদের ক্ষেত্রে বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। তবে ভ্যাকসিন না নেওয়া জনগোষ্ঠীর ওপর বেশি প্রভাব বিস্তার করবে নতুন এ ধরন।

গত কয়েক সপ্তাহে ভিয়েতনামে করোনা সংক্রমণ দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে। এখন পর্যন্ত দেশটিতে ছয় হাজার সাতশ’র বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।

এর মধ্যে অর্ধেকের বেশিই চলতি বছরের এপ্রিলের পর থেকে শনাক্ত হয়েছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৪৭ জন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here