৬২ আরোহী নিয়ে ইন্দোনেশিয়ায় উড়োজাহাজ নিখোঁজ

0
41
৬২ আরোহী নিয়ে ইন্দোনেশিয়ায় উড়োজাহাজ নিখোঁজ

খবর৭১ঃ ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তা থেকে উড্ডয়নের পর শ্রীবিজয়া এয়ারের একটি যাত্রীবাহী উড়োজাহাজ নিখোঁজ হয়েছে। ওই উড়োজাহাজে সাতজন শিশু এবং ছয়জন ক্রু সদস্যসহ মোট ৬২ জন আরোহী ছিল বলে জানা গেছে।

শনিবার স্থানীয় সময় ১ টা ৫৬ মিনিটে উড়োজাহাজটি পশ্চিম কালিমান্তান প্রদেশ থেকে বোর্নিও দ্বীপের পোন্তিওনাকে যাত্রা করে। আর দুইটা ৪০ মিনিটে বিমানটি কন্ট্রোল টাওয়ারের সঙ্গে শেষ যোগাযোগ করে বলে জানান দেশটির পরিবহন মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আদিতা।

ইন্দোনেশিয়ার গণমাধ্যম মেরডেকা জানিয়েছেন, বিমানের ট্র্যাকিংটি উচ্চতা হ্রাসের পরে জাকার্তার ঠিক উত্তর দিকে উপকূলে শেষ হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে এটি সমুদ্রে বিধ্বস্ত হয়েছে। উপকূল অঞ্চলেরর কিছু সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, স্থানীয়রা সমুদ্রে কিছু একটা বিধ্বস্ত হওয়ার আওয়াজ পেয়েছেন। তবে, দেশটির কর্তৃপক্ষ এ ধরনের তথ্য এখনো নিশ্চিত করেনি। ইন্দোনেশিয়ান নৌবাহিনীর ১১ টি জাহাজসহ সমুদ্র ও বিমান অনুসন্ধান ও উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে।

এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, তারা এই বিষয়ে আরও তথ্য সংগ্রহের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে৷ উদ্ধারকারী সংস্থা একটি সার্চ কমিটি পাঠিয়েছে।

ফ্লাইট ট্র্যাকার ওয়েবসাইট ফ্লাইটরাডার২৪ এক টুইটে জানায়, জাকার্তা থেকে উড়াল দেয়ার চার মিনিট পর সেটি আকাশে ১০ হাজার ফুটের বেশি উচ্চতায় অবস্থান করছিল। সেখানে এক মিনিটের কম সময় অবস্থানের পর হঠাৎ করেই সেটি রাডার থেকে হারিয়ে যায়।

বিমানটি পশ্চিম কালিমান্তান প্রদেশের পন্টিয়ানাক বিমানবন্দরের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেছিল। রেজিস্ট্রেশন তথ্য অনুযায়ী, বিমানটি ২৭ বছর পুরোনো একটি বোয়িং ৭৩৭-৫০০।

শ্রীভিজয়া এয়ার স্থানীয় বিমান অপারেটর। তারা বলছে, ওই ফ্লাইট সম্পর্কে তারা এখনো তথ্য জোগাড় করছে।

তবে এই ফ্লাইটটি বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স নয় যেটি সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দুটি বড় ধরনের দুর্ঘটনায় পড়েছে। এর মধ্যে প্রথমটি ঘটে ইন্দোনেশিয়ায় ২০১৮ সালের অক্টোবর মাসে। স্থানীয় বিমান সংস্থা লায়ন এয়ারের ফ্লাইটটি ১৮৯ জন যাত্রী নিয়ে সাগরে বিধ্বস্ত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here