ইউক্রেনীয় ও রুশ বাহিনীর মধ্যে ভাগ হয়ে গেছে সেই শহর

0
26

খবর৭১ঃ কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় সেভেরোদোনেৎস্ক শহরটির নিয়ন্ত্রণ ইউক্রেনীয় ও রুশ বাহিনীর মধ্যে ভাগ হয়ে গেছে । লুহানস্ক অঞ্চলের গভর্নর সেরহি হাইদাই এ খবর নিশ্চিত করেছেন বলে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা রোববার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

ইউক্রেনীয় একটি টেলিভিশনে তিনি বলেন, এটি একটি কঠিন পরিস্থিতি। রাশিয়ানরা শহরের ৭০ শতাংশ নিয়ন্ত্রণ করেছিল, কিন্তু গত দুই দিনে রুশ বাহিনীর অগ্রগতি রুখে দিয়ে কিছু অংশ পুনরুদ্ধার করেছে।

শহরটি এখন কমবেশি দুইভাগে বিভক্ত বলে জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে, স্থানীয় সময় শনিবার সকালে টেলিগ্রাম অ্যাপে দেওয়া এক পোস্টে সেরহি হাইদাই বলেছেন, ইউক্রেনীয় বাহিনী গত ২৪ নয়টি আক্রমণ প্রতিহত করেছে। এ সময় তারা একটি ট্যাঙ্ক, একটি আর্টিলারি সিস্টেম এবং আটটি সাঁজোয়া যান ধ্বংস করেছে।

এছাড়া এয়ার ডিফেন্স ইউনিট একটি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র এবং তিনটি মনুষ্যবিহীন অ্যারিয়াল ভেহিকেল ভূপাতিত করেছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

ওই পোস্টে তিনি আরও বলেন, রুশ বাহিনী ‘সেভেরোদোনেৎস্কে সর্বশক্তি মোতায়েন করেছে’।

তিনি বলেন, শহরের মানবিক পরিস্থিতি ভয়াবহ। কারণ ‘শহরে খাদ্য ও ওষুধ সরবরাহ করা অসম্ভব’ হয়ে পড়েছে।

এদিকে, শহরটি দখলে রাশিয়া নতুন রিজার্ভ সৈন্য মোতায়েন করেছে বলে পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনী এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনী ওই প্রতিবেদনে জানিয়েছে, সেভেরোদোনেৎস্কে শহরে শুক্রপক্ষ আর্টিলারি দিয়ে হামলা চালাচ্ছে। রুশ বাহিনী নিজেদের শক্তি বাড়াতে দ্বিতীয় সেনা কর্পসের মোবাইল রিজার্ভ থেকে সেনা মোতায়েন করেছে। শহরটিতে লড়াই অব্যাহত আছে।

আমেরিকান ইনস্টিটিউট ফর দ্য স্টাডি অব ওয়ারের (আইএসডব্লিউ) সামরিক বিশেষজ্ঞরা জানান, যুদ্ধ শুরুর আগেই রাশিয়া পাঁচ লক্ষাধিক মানুষের বাসস্থান স্লোভিয়ানস্ক অঞ্চলে অগ্রসর হওয়ার লক্ষ্যে প্রায় ২০টি কৌশলগত ব্যাটালিয়ন জড়ো করেছিল। রাশিয়ার গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্য দোনবাসের জন্য ওই অঞ্চল গুরুত্বপূর্ণ।

এছাড়া সেভেরোদোনেৎস্কে ইউক্রেনীয় বাহিনীর শক্তিবৃদ্ধি রোধ করতে এবং শহরে অবস্থানরত বেসামরিক মানুষের কাছে সহায়তা পাঠানো রুখতে সেভারস্কি দোনেৎস নদীতে অসস্থিত ব্রিজগুলো ধ্বংস করছে রুশ বাহিনী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here