সাইনবোর্ড-চাষাঢ়া ৬ লেন প্রকল্প বাস্তবায়নে বাধা বিদ্যুতের খুঁটি

0
34

খবর৭১ঃ নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড-চাষাঢ়া লিংকরোড ছয় লেনে উন্নীতকরণের কাজ বেশ জোরেশোরে শুরু হয়েছে।

তবে রাস্তার দুই পাশের বিদু্যতের খুঁটি, গ্যাসলাইন ও ওয়াসার পাইপলাইন এবং অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে না নেওয়ায় প্রকল্পের কাজে কিছুটা ভাটা পড়েছে।

চলতি বছরের মে থেকে প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে। আট কিলোমিটারের আঞ্চলিক সড়কটির দুই পাশে কংক্রিটের ড্রেন নির্মাণ কাজের ৩৫ শতাংশ শেষ হয়েছে। চার লেনের সেতুগুলো ছয় লেনে উন্নীতকরণের কাজও অনেকটা এগিয়েছে। কিছু কিছু স্থানের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে বালি ভরাট করা হয়েছে।

কিন্তু চাষাঢ়া মোড় থেকে চানমারী এলাকা পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশ দখল করে গড়ে ওঠা মার্কেট, কিছু ধর্মীয় স্থাপনা এবং বিদু্যতের খুঁটি প্রকল্পটির কাজে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এ ব্যাপারে লিংকরোড ছয় লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পের উপপ্রকল্প ব্যবস্থাপক ও উপবিভাগীয় প্রকেৌশলী শাখাওয়াত হোসেন শামীম বলেন, দিনরাত নিরলসভাবে কাজ করা হলেও বিদ্যুতের খুঁটি অপসারণ না করায় এবং কয়েকটি স্থানে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে জটিলতা সৃষ্টি হওয়ায় কাজের গতি কমে যায়।

তবে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও বিদ্যুৎ বিভাগসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠকের পর বাধা কেটে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রকল্প এলাকার বিদু্যতের খুঁটি সরানোর জন্য আমরা বিদু্যত্ বিভাগকে ২৭ কোটিরও বেশি টাকা দিয়েছি। এছাড়া রাস্তার দুই পাশে ফেলা আবর্জনা সরানোর জন্য ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সঙ্গেও যোগাযোগ করেছি।

আবর্জনা সরাতে সিটি করপোরেশন ট্রাকপ্রতি ৪ হাজার টাকা করে চাওয়ায় জটিলতার সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া প্রকল্পের জালকুড়ি এলাকার একদিকে আবর্জনার স্তূপ এবং অন্যদিকে রাস্তা সম্প্রসারণে একটি সংস্থা প্রয়োজনীয় জমি না ছাড়ায় কাজের গতি কমে গেছে।

নারায়ণগঞ্জের বিদ্যুৎ বিভাগ জানায়, খুঁটি অপসারণের বিষয়টি কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে দেখভাল করা হচ্ছে। প্রকল্প এলাকা থেকে খুঁটি সরাতে ইতোমধ্যে ঠিকাদার নিয়োগ করা হয়েছে বলে আমরা জেনেছি। খুব শিগগিরই কাজ শুরু হবে।

ছয় লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পের উপপ্রকল্প ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী শাখাওয়াত আরও জানান, সাইনবোর্ডে যানজট কমানোর জন্য ছয় লেন প্রকল্পে দুটি ইউটার্নও নির্মাণ করা হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জ থেকে চট্টগ্রামমুখী যানবাহনের জন্য মাতুয়াইলে এবং চট্টগ্রাম থেকে নারায়ণগঞ্জমুখী যানবাহনের জন্য সানারপাড়ে ইউটার্ন দুটি নির্মাণ করা হচ্ছে।

উলে্লখ্য, যাত্রাবাড়ী-কাঁচপুর সেতু পর্যন্ত দেশের একমাত্র আট লেনের মহাসড়ক যান চলাচলের জন্য ২০১৬ সালের ১৩ আগস্ট খুলে দেওয়া হয়।

কিন্তু সাইনবোর্ড এলাকায় ইউটার্নের অভাবে মহাসড়কটিতে প্রতিনিয়ত যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। বিশেষ করে সকাল ও সন্ধ্যায় পণ্যবাহী ট্রাক চলাচলকালে এবং বৃহস্পতিবার যানজট ভয়াবহ আকার ধারণ করে। এ সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক বন্ধ করে চাষাঢ়া-সাইনবোর্ড সড়কে চলাচলকারী যানবাহনকে যাতায়াতের সুযোগ করে দিতে হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here