কর্মী হত্যার অভিযোগে নড়িয়ার রাজনগর ইউপি চেয়ারম্যান গাজী জাকির সহ গ্রেপ্তার ৪

0
27

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:
শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার রাজনগর ইউনিয়নে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নিজ দলের কর্মীকে গুলি, বোমা মেরে ও কুপিয়ে হত্যার কথা স্বীকার করেছে আটক ব্যক্তিরা। এ ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা গাজী জাকির হোসেন সহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে শরীয়তপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। ডিবি পুলিশের কাছে গ্রেফতার দুজন হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে। তাদের মধ্যে দুজনকে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। বুধবার রাতে শরীয়তপুর ও ঢাকা থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। বৃহস্পতিবার রাতে শরীয়তপুর ডিবি পুলিশের (ওসি) মো. সাইফুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

শরীয়তপুর ডিবি পুলিশের (ওসি) মো. সাইফুল আলম ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার রাজনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এবং নড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক গাজী জাকির হোসেন প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নিজ দলের কর্মী মালতকান্দি গ্রামের দলিল উদ্দিন মীর বহরের ছেলে আলমগীর হোসেন মীর বহরকে ধরে নিয়ে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই জাহাঙ্গীর মীর বহর প্রতিপক্ষের ৫৪ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেছিলেন। মামলাটি পরে ডিবি পুলিশে হস্তান্তর করা হয়। ডিবি পুলিশ ঢাকার সায়েদাবাদ থেকে চেয়ারম্যান গাজী জাকির হোসেন, রাজনগর ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার জয়নাল মাদবর, একই রাতে রাজনগর এলাকা থেকে শহীদুল ইসলাম মীর বহর, সাজ্জাদ সরদারকে গ্রেপ্তার করে। তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এদের মধ্যে শহীদুল ইসলাম মীর বহর, সাজ্জাদ সরদারকে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here