বিরামপুরে আত্মহত্যার প্ররোচনা ও আলামত ধ্বংসের মামলায় স্বামী গ্রেপ্তার

0
167

মোঃ আবু সাঈদ, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুরের বিরামপুর স্ত্রী কে শারীরিক ও মানুষিক ভাবে নির্যাতনের মাধ্যমে আত্মহত্যার প্ররোচনা। স্ত্রীর মৃত্যুর পর আলামত ধ্বংসের অপরাধে দায়েরকৃত মামলায় স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ ।

থানার মামলা সূত্রে জানা যায়, সোমবার ( ২৩ আগষ্ট) উপজেলার কাটলা ইউনিয়নের পলি-খিয়ারমামুদপুর গ্রামের ফয়েজ উদ্দিনের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক তাঁর স্ত্রী জেসমিন আরাকে তুচ্ছ ঘটনায় নির্যাতন করে। এতে জেসমিন রাগ করে বিষ পান করে অসুস্থ হয়ে পড়লে বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেলে কলেজে প্রেরণ করেন।

বুধবার (২৫ আগষ্ট) ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেলে কলেজে জেসমিন মৃত্যুবরণ করেন। ঐ দিন দুপুরে জেসমিনের লাশ বাড়িতে এনে গ্রাম্য শালিশের মাধ্যমে মিমাংসা করে।আইনি প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ না করে তড়িঘড়ি ভাবে জেসমিনের দাফন কার্য সম্পূর্ণ করে ।

বৃহস্পতিবার (২৬ আগষ্ট) দাফনের পর গ্রাম পুলিশ হামিদুর রহমানের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে বিরামপুর থানায় চার জনকে আসামী করে বিরামপুর থানায় মামলা রুজু হয় । মামলা নং-২৬।

থানা পুলিশ মামলার প্রেক্ষিতে তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে মামলার ১নং আসামী জেসমিনের স্বামী আব্দুর রাজ্জাক (বিদ্যুৎ) কে আটক করে দিনাজপুর আদালতে পাঠিয়েছেন।

এবিষয়ে বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মামলার প্রেক্ষিতে স্বামী রাজ্জাককে গ্রেপ্তার পূর্বক আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তীতে প্রয়োজনীও ব্যবস্থা করা হবে। বাঁকী আসামিদের গ্রেপ্তারে জোর চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here