জীবনে সুখী হতে চাইলে যা বাদ দিতে হবে

0
37

খবর৭১ঃ
জীবনে সুখী হতে চাইলে এমন কিছু জিনিস, মনোভাব বাদ দিতে হয় যা আপনার অগোচরে আছে। আবার কিছু জিনিস জীবনে যোগও করতে হয়। সুখী হতে চাইলে আপনাকে হতে হবে আত্মপ্রত্যয়ী। পাশাপাশি নতুন দৃষ্টিভঙ্গি জীবনে যোগ করতে হবে। জেনে নিন জীবনে সুখী হতে চাইলে যেসব বাদ দিতে হবে।

অজানা ভয়

জীবনে সুখী হতে চাইলে ভয়কে জয় করতে হবে। ভবিষ্যতে কী কী হবে তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করার কোনো মানে নেই। তাই ভবিষ্যৎকে ভবিষ্যতের উপর ছেড়ে দিয়ে চিন্তা মুক্ত থাকুন।

নিজের সম্পর্কে নেতিবাচক ভাবনা

আপনি নিজের সম্পর্কে যদি নেতিবাচক ভাবনা পোষণ করেন তবে জীবনে উন্নতি করতে পারবেন না। এমনকি সুখীও হতে পারবেন না। তাই নিজের সম্পর্কে ইতিবাচক ভাবনা তৈরি করুন।

অজুহাত

অজুহাত আপনাকে পেছনের দিকে নিয়ে যাবে। কাজ করার জন্য ইচ্ছাশক্তিই যথেষ্ট। আর কাজ না করতে চাইলে হাজারটা অজুহাত দেয়া যায়। এবার আপনিই ঠিক করুন অজুহাত দেখাবেন নাকি কাজ করবেন?

অতীত ভুলে যান

সুখী ও সফল হতে চাইলে অতীত ভুলে যান। অতীতে হয়তো আপনি অনেক ভুল করেছেন। কিন্তু সেগুলোকে স্মরণ করে সময়ক্ষেপণ করার কোনো মানে নেই। অতীত নিয়ে আপনি ডুবে থাকলে বর্তমানে কাজে লাগাতে পারবেন না।

অন্যকে দোষারোপ করা

আপনি যদি নিজের ভুলটা স্বীকার করতে পারেন তবে নিজে সংশোধন করতে পারবেন। অন্যদিকে নিজের দোষ অন্যদের উপর চাপিয়ে দিলে নিজেকে সংশোধনের সুযোগ তো পেলেনই না বরং শত্রুতা বাড়ালেন।

অভিযোগ জানানো

কিছু মানুষ আছে যারা অনবরত অভিযোগ করে থাকে। ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান, রাষ্ট্র এমনকি পরিবারের প্রতিও তাদের বিস্তর অভিযোগ। সফল ও সুখী হতে চাইলে অভিযোগ না করে ক্ষমা করে দিন।

সবকিছু নিখুঁত চাই

পৃথিবীতে কোনো কিছুই নিখুঁত নয়। তেমনি মানুষও নিখুঁত নয়। তাই সব কাজ, সব কিছু নিখুঁত করতে চাওয়াটাও ভুল। একটা কাজ ৮০ ভাগ নিখুঁত হলেই ভাববেন আপনি উতরে গেছেন।

স্থির মানসিকতা

কিছু মানুষ আছে যারা তাদের মানসিকতাকে স্থির করে রাখে। এরা নতুন কিছু শিখতে চায় না। অথচ শেখার প্রয়োজনের মানসিকতারও বদল আনতে হয়।

বিষিয়ে তোলা ব্যক্তিত্ব এড়িয়ে চলুন

কিছু মানুষ আছে যারা আপনাকে সব সময় বিষিয়ে তোলে। তাদের হতাশা আপনার ভেতর নিংড়ে দেয়। এদের জীবন থেকে ঝেড়ে ফেলুন। এরা নিজেরা জীবনে কিছু করতে পারেনি, তাই তারা চায় যেন আপনিও কিছু না করতে পারেন। এদের স্তরে আপনাকে টেনে আনতে পারলেই তারা সফল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here