মদনে স্ত্রীর মামলায় স্বামী ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার

0
32

মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধিঃ নেত্রকোনার মদনে স্ত্রীর মামলায় আফর উদ্দিন নামে এক ইউপি সদস্যকে গ্রেফতার করেছে মদন থানা পুলিশ। রোববার পৌরসভার কোর্ট বিল্ডিং এলাকায় নিজবাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করে।
সে উপজেলার ৮নং ফতেপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও মৃত আছাব আলীর ছেলে। গত ৩ জুলাই তার স্ত্রী শারমিন আক্তার ডেইজি বাদি হয়ে স্বামী আফর উদ্দিনসহ ৫জনের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন ও যৌতুক মামলা দায়ের করেন।
জানা যায়, গত ২৯ জুন ইউপি সদস্য আফর উদ্দিন স্ত্রী শারমিন আক্তারের নিকট যৌতুক দাবি করে নির্যাতন চালায়। এক পর্যায়ে শারমিন আক্তার ডেইজি জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। কিছুক্ষণ পর জ্ঞান ফিরলে ৯৯৯ নম্বরে কল করে
পুলিশের সহযোগিতা চায়। পুলিশ তাকে উদ্ধার করে মদন হাসপাতালে ভর্তি করে।
পরে ইউপি সদস্যের স্ত্রী বিচার চেয়ে শনিবার ৩ জুলাই স্বামী আফর উদ্দিন ও তার ভাই আবুল কাসেম, হাকিম উদ্দিন, খায়রুল ইসলাম, ভাতিজা রফিকুলকে আসামি করে মদন থানায় নারী নির্যাতন ও যৌতুক মামলা দায়ের করেন। এরই প্রেক্ষিতে রোবরার সকালে ইউপি সদস্য আফর উদ্দিনকে পুলিশ অভিযান চালিয়ে কোর্ট বির্ল্ডি এলাকায় নিজ বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে। আজ বিকালে তাকে নেত্রকোনা কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হবে।
ভুক্তভোগীর স্বজনরা জানান, ইউপি সদস্য আফর উদ্দিনের সাথে শারমিন আক্তার
ডেইজির ১০ বৎসর সংসার জীবন অতিবাহিত করে। এর মধ্যে প্রায়ই তাকে যৌতুকের দাবি ও নির্যাতন চালিয়ে আসছে। তাদের গর্ভে ২টি মেয়ে সন্তান রয়েছে। পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করায় আমরা স্বস্তিবোধ করছি।
ওসি ফেরদৌস আলম জানান,রইউপি সদস্যের স্ত্রী শারমিন আক্তার ডেইজি ৩ জুলাই স্বামীসহ ৫জনকে আসামি করে মদন থানায় একটি নারী নির্যাতন ও যৌতুক মামলা দায়ের করেন। এরই প্রেক্ষিতে ইউপি সদস্যকে তার বাসা
থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আজ বিকালে তাকে নেত্রকোনা কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হবে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here