কষ্ট পেয়েও আমি তার পাশে থেকেছি: বুবলী

0
51

খবর৭১ঃ
গত মাসে নায়িকা বুবলীর সন্তান নিয়ে প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই গুঞ্জন রয়েছে শাকিব-বুবলীর বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ে। একই সময়ে গুঞ্জন ওঠে শাকিব হয়তো অপু বিশ্বাসের কাছে ফিরবেন।

তবে, এসব গুঞ্জনের বিষয়ে সরাসরি কোনো মন্তব্য করেননি শাকিব খান। যদিও বুবলি সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, তিনি বিয়ে করেছেন সংসার করার জন্য।

তবে শাকিব খানের ইঙ্গিত পুরো বিপরীত। সম্প্রতি এসব বিষয়ে শাকিব খান সংবাদমাধ্যমকে জানায়, তাদের বিয়েবিচ্ছেদ না হলেও তারা আলাদা থাকছেন।

এ বিষয়ে বুবলী বলেন, আজকে জীবনের এ পর্যায়ে এসে আমার মনে হচ্ছে, আমি হয়তো ব্যক্তিজীবন নিয়ে আপনাদের সঙ্গে খুব একটা কথা বলি না, অনেক টেলিভিশন চ্যানেলে গিয়ে সবকিছু তুলে ধরি না। তাই অনেক কিছু নিয়েই গত সাত বছরে আমি বহু মানুষের ভুল বোঝার কারণ হয়েছি।

শুধু নিজের ব্যক্তিজীবন আড়ালে রাখার জন্য আর অন্য কাউকে যেন অসম্মান করে কথা বলতে না হয় সে জন্য এতদিন চুপ থেকেছেন বলে জানান বুবলী। আর এটাকেই অনেকে তাদের হাতিয়ার বানিয়ে কাজে লাগিয়েছে। কারণ সবকিছু তুলে ধরলে অনেক ইস্যুতেই অনেকে অসম্মানিত হতো, আমি এটা কখনই চাইনি। আর এটাকে ব্যবহার করেই আমাকে হেয় করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমি এখনো বলব আমি আমার জায়গা থেকে কখনই বিচ্ছেদের জন্য বিয়ে করিনি, সন্তান নিইনি। অবশ্যই সংসার করার জন্য, সুন্দর একটা পরিবারের জন্য আমি অনেক কিছু মেনে নিয়ে এখনো সুখে থাকার চেষ্টা করছি। কারণ বিচ্ছেদ কখনই ভালো কিছু নিয়ে আসে না।

শাকিব বলেছেন, মানুষ চিনতে তিনি ভুল করেছেন, কিছু ভুল মানুষের সঙ্গে মিশেছেন। আপনি কী সেই ভুল মানুষদের একজন?

বুবলী বলেন, দেখুন, মানুষের জীবনটা খুব ব্যতিক্রম। কখন কী হয় কেউ জানে না। সময় সবকিছু পরিস্কার করে দেয়, কে ভুলকে সঠিক তাও সময় বলে দেয়। যে সময়টা কাউকে সবচেয়ে সঠিক মনে হয়, ঠিক অন্য আরেকটা সময় গিয়ে তাকে সবচেয়ে ভুল মনে হয়। এর জন্য সময় এবং পরিস্থিতি কিছুটা দায়ী। তাই কে কখন কী ভাবছে এটা সর্ম্পূণ যার যার ব্যক্তিগত মতামত।

অভিযোগ রয়েছে, আপনি শাকিবের শত্রুদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে এই ইস্যু সামনে এনেছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। কারণ আমি কখনই শাকিব খানকে ছোট করে বা তাকে অপমান করে, তার প্রতি অভিযোগ এনে অথবা তার অসম্মান হয় এমন কোনো কথা বলিনি। অথবা এমন কোনো কাজ কখনো করিনি।

বুবলী বলেন, আমি চেয়েছিলাম আমাদের ছেলের বিষয়টা সুন্দর ভাবে সামনে আসুক, যার জন্য ছেলের আড়াই বছর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হলো। কিন্তু কী কারণে হচ্ছিল না আমি জানিনা… এমনকি আমি যখন বেবীবাম্পের ছবি দিয়েছিলাম, তখনও কী আমি কোনো অভিযোগ করেছিলাম তাকে নিয়ে? করিনি… অনেক কিছু ওভারলুক করেছি। বরং নিজে যত কষ্টই পেয়েছি না কেন, যে কোনো সময় আমি তার পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। আমি সবসময় চাই সে ভালো থাকুক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here