বেনাপোলে ২৬ বোতল ডিউটি-ফ্রি মদসহ আটক-১

0
22

শেখ কাজিম উদ্দিন, বেনাপোল : বেনাপোল সীমান্ত থেকে ২৬ বোতল ডিউটি-ফ্রি মদসহ পারভিনা খাতুন(২০) নামের এক চোরাকারবারিকে আটক করেছেন পোর্ট থানা পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যার সময় সীমান্তের বড় আঁচড়া এলাকা থেকে তাকে এ মদের চালানসহ আটক করা হয়েছে। আটককৃত পারভিনা বেনাপোল পোর্ট থানার বড়আঁচড়া গ্রামের মিন্টুর বাড়ির ভাড়াটিয়া ও হাদি সদ্দারের স্ত্রী। পুলিশের এ আটক অভিযানে পাঁচারের সাথে জড়িত ওবায়দুর রহমান ও হাদি নামে দুই চোরাকারবারি সুকৌশালে পালিয়ে যাওয়ায় তাদেরকে আটক করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছেন পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) কামাল হোসেন ভুঁইয়া।
তিনি জানান, বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের বিশেষ অভিযান পরিচালনার সময় বড়আঁচড়া এলাকা হইতে ২৬ বোতল বিদেশী মদসহ আসামী মোছাঃ পারভিনা খাতুনকে আটক করা হয়েছে। এসময় ওবায়দুর রহমান ও হাদি নামে অন্য দুই জন পাঁচারকারি সুকৌশালে পালিয়ে যাওয়ায় তাদেরকে আটক করা সম্ভব হয়নি। উক্ত ২৬ বোতল বিদেশী মদের মধ্যে ভ্যাট-সিক্সটি নাইন ১৮ বোতল ও স্মিরিনফ- ৮ বোতল। এ বিষয়ে আটককৃত পারভিনাসহ ৩জনের নামে মাদক আইনে মামলা হয়েছে বলে জানান তিনি।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে কাস্টমস, বিজিবি ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, বিদেশি পর্যটকদের আকর্ষণের জন্য সরকার বেনাপোল ইমিগ্রেশন কাস্টমস ভবনে দুটি ডিউটি ফ্রি মদের দোকানের অনুমতি দিয়েছেন। সেখানে ডিউটি ফ্রি মদের দোকানের কর্মকর্তারা বেশি লাভের আশায় পর্যটকদের কাছে বিক্রি না করে (মদ আসছেনা বলে) বছরের পর বছর চোরাইপথে ২গুণ বেশি দামে স্থানীয় পাঁচারকারি সিন্ডিকেটের কাছে বিক্রি করছে। মাঝে মধ্যে বাহিরে এধরণের ডিউটি ফ্রি মদের চালান দু’একটি আটক হলেও মূলহোতা ডিউটি ফ্রি সপের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় তারা বে-পরোয়া হয়ে মাদকের রমরমা বার্ণিজ্য করে রাতারাতি কোটিপতি বনেগেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here