সৈয়দপুরে পুলিশের ব্যারিকেট সত্বেও বিএনপি’র বিক্ষোভ সমাবেশ

0
72

মিজানুর রহমান মিলন, সৈয়দপুর :
নারায়ণগঞ্জে পুলিশের গুলিতে যুবদল নেতা শাওন প্রধান নিহতের প্রতিবাদে সৈয়দপুরে পুলিশের ব্যারিকেট সত্বেও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বিএনপি। কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসুচির অংঢ় হিসেবে গতকাল শনিবার বিকেল সাড়ে ৫ টায় শহরের শহীদ ডা. জিকরুল হক সড়কের বিএনপি কার্যালয়ের সামনে ওই কর্মসূচী পালন করে দলটির নেতাকর্মীরা।
এতে সভাপতিত্ব করেন সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক এ্যাড. এস এম ওবায়দুর রহমান। বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি’র সদস্য সচিব শাহীন আকতার,
যুগ্ম আহবায়ক শওকত হায়াত শাহ ও সামসুল আলম, উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক মনোয়ার হোসেন সরকার, জেলা যুবদলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন প্রামানিক, জেলা কৃষকদলের সভাপতি মাজহারুল ইসলাম বসুনিয়া মিজু, পৌর ছাত্রদলের আহবায়ক মুহিত চৌধুরী প্রমুখ। বিক্ষোভ সমাবেশ করতে দলটি তাদের কার্যালয়ের সামনে অস্থায়ী মঞ্চে বক্তব্য দিলেও পুলিশী বাধায় সামনে দাড়াতে না পেরে নেতাকর্মীরা বাধ্য হয়ে অফিসের ভিতরেই অবস্থান করে। এসময় পুলিশ সমাবেশস্থল ঘিরে রাখে।
পুলিশের এমন ভুমিকায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বক্তারা বলেন, এভাবে বাধা দিয়ে জনরোষ ঠেকানো যাবেনা। দলের নেতাকর্মীদের যত অবরুদ্ধ করা হবে ততই আন্দোলন জোরদার হবে। হামলা আর মামলা করে আন্দোলন দমানো যাবেনা। জনগন যখন জেগেছে, দাবি তত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত কেউ ঘরে ফিরে যাবেনা। বক্তারা বলেন বিএনপির জনপ্রিয়তা দেখে সরকার ভীত হয়ে সভা সমাবেশে বাধা দেওয়াসহ হামলা মামলা করছে। কিন্তু কোন লাভ হবেনা। আন্দোলন চলবেই।
বক্তারা পুলিশ প্রশাসনের উদ্দেশ্যে বলেন, কারও লেজিরবৃত্তি নয়, নিরপেক্ষ ভুমিকা পালন করুন। এতে আপনাদের প্রতি জনগনের শ্রদ্ধা বাড়বে। জনগন আপনাদের কাছে শান্তি ও ভালবাসা চায়,হামলা মামলা নয়। পুলিশ হলো জনগণের সেবক।

বক্তারা অভিযোগ করেন যে, সরকারী দলই মিছিল করে বিএনপি অফিসের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় উষ্কানীমূলক শ্লোগান দেয় এবং ঢিল ছুড়ে। এসব বন্ধ না হলে আগামীতে দাঁতভাঙা জবাব দেয়া হবে। বিএনপি সবসময়ই স্থিতিশীল রাজনীতি করে, জনগণের ও দেশের কথা বলে। তবে সীমা অতিক্রম করলে চুপ করে কেউ বসে থাকবেনা।

গতকালের সমাবেশ শুরুর আগে বিকাল ৪ টা থেকেই বিএনপি অফিসের আশে পাশে পুলিশ অবস্থান নেয়। বিকেল ৫ টার দিকে বিএনপি’র নেতাকর্মীরা অফিসের সামনে সমবেত হয়ে সড়কে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলে পুলিশ সেখানে বাধা দেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here