জিনিসপত্রের দাম বাড়ার কারণে কেউ মারা যায়নি : পরিকল্পনামন্ত্রী

0
41

খবর৭১ঃ পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, বাংলাদেশকে গোলামি থেকে মুক্ত করে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত করেছে আওয়ামী লীগ সরকার। কিছু মানুষ আছে, আমাদের পছন্দ করে না। তারা বলছে, জিনিসপত্রের দাম বেড়েছে, মানুষ মরে যাবে। তবে আমরা অস্বীকার করব না। জিনিসপত্রের দাম কিছুটা বেড়েছে এটা সত্য। কিন্তু জিনিসপত্রের দাম বাড়ার ফলে এখনো কেউ মারা যায়নি, আশা করি মরবেও না।

বুধবার (১০ আগস্ট) সকালে সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জ উপজেলার ডুংরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ‘বঙ্গবন্ধু মডেল গ্রাম প্রতিষ্ঠা’ শীর্ষক পাইলট প্রকল্পের আওতায় ৮০ জন উপকারভোগীর মাঝে ঋণের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

জনশুমারির সমালোচনা নিয়ে বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, কিছুদিন আগে জনশুমারির কাজ নিয়েও একদল মানুষ বলে বেড়াচ্ছে, জনশুমারি হয়নি। তারা বাড়িতে বসে চা-বিস্কুট খায় আর অযথা দোষ খোঁজে। এটা তাদের অভ্যাস।

মন্ত্রী আরও বলেন, বর্তমান সময়ে বিদ্যুৎ নিয়ে মানুষের অনেক কষ্ট হচ্ছে। প্রতিদিন ২-৩ ঘণ্টা বিদ্যুৎ থাকে না। বিশ্বজুড়ে যুদ্ধের কারণে তেল-গ্যাস বন্ধ হয়ে গেছে। আমেরিকা ও রাশিয়ার কারণে এই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

তিনি বলেন, একটি কুচক্রী মহল তিন মাস আগ থেকে বলছে, দেশ শ্রীলঙ্কা হয়ে যাবে। আমরা বলেছিলাম হবে না। আর মাত্র একটি মাস, আমরা আগের জায়গায় ফিরে যাব।

উপস্থিত জনগণের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, ছেলে-মেয়েদের টেকনিক্যাল কাজ শেখানোর জন্য আমার নিজের দেওয়া জমিতে টেকনিক্যাল প্রতিষ্ঠান, মেডিকেল টেকনিক্যাল কম্পাউন্ডার প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হবে। এখান থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে ভালো চাকরি করার সুযোগ হবে।

শান্তিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নুর হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুব আলম, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান দুলন রানী তালুকদার, এসিল্যান্ড সকিনা আক্তার, ওসি খালেদ হোসেন চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হাজী তহুর আলী, ডুংরিয়া হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মদনমোহন রায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here