বাগমারায় নির্বাহী অফিসারের অপসারণের দাবিতে আওয়ামী লীগের প্রতিবাদ সভা

0
29

বাগমারা (রাজশাহী) প্রতিনিধিঃ রাজশাহীর বাগমারায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অপসারণের দাবিতে উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। আগামী ৫ই জানুয়ারী ৫ম ধাপে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এরই মধ্যে উপজেলার ১৬টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচনের আমেজ বেশ জমে উঠেছে।
একদিকে নির্বাচনের আনন্দের ঘনজোয়ার বইছে ঠিক তখনি নির্বাচন আচরন বিধি লঙ্ঘনের নাম করে (২৮ শে ডিসেম্বর) মঙ্গলবার বাগমারা উপজেলা প্রশাসন ভ্রাম্যমান অভিযান পরিচালনা করে নৌকা প্রতীকের অফিস গুলো ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়।

এই বিষয়ে বাগমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ ঘোষণা করা হয়। তার এই ধারাবাহিকতায় (২৯ই ডিসেম্বর) বুধবার বাগমারা উপজেলার আওয়ামীলীগসহ অঙ্গ সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রত্যেক ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে বুধবার বিকাল থেকেই ইউএনও’র অপসারন দাবিতে মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয় ।

প্রত্যেক প্রতিবাদ সভায় উপস্থিত নেতাকর্মীরা বাগমারা উপজেলার নির্বাহী অফিসার ফারুক সুফিয়ান কে অনতিবিলম্বে অপসারণের দাবি করেন। গোবিন্দপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে গোবিন্দপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এক প্রতিবাদ সভা যেন মহা জনসমুদ্রে পরিনত হয়। উক্ত প্রতিবাদ সভায় গোবিন্দপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি প্রভাষক আশরাফুল ইসলামের(বাবু) সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক কছিমদ্দিনের উপস্থাপনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাগমারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনিল কুমার সরকার, রাজশাহী জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও বাগমারা উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নারর্গিস সোহারাফ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি ও ভবানিগঞ্জ পৌর মেয়র আব্দুল মালেক মন্ডল, বাগমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও গোবিন্দপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীককের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ আল মামুন প্রামাণিক।উক্ত সভায় প্রধান অতিথিসহ উপস্থিত সকল নেতাকর্মীরা বাগমারা উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বিশ্বাস ঘাতক, পাকিস্তানি দালাল ও রাজাকারের বাচ্চা বলে অভিহিত করেন। তারা আরও বলেন, স্বাধীনতার প্রতীক নৌকা প্রতীক ভেঙে বাঙালি জাতি সত্তার উপর সেই আঘাত এনেছে। তাই এ নির্বাহী অফিসার ফারুক সুফিয়ানের রাষ্টীয় ভাবে প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে তারা বিচার দাবি করেন। এছাড়াও উক্ত প্রতিবাদসভায় আরও উপস্থিত ছিলেন গোবিন্দপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি মাস্টার গুলবর রহমান, আক্তারজ্জামান বুলবুল, বানইল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মামুন রশিদ, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মোঃ আবু সাইদ, মাস্টার আসাদুল ইসলাম, যুব মহিলা লীগের সভাপতি মোছাঃ জুলেখা রহমান, সাধারণ সম্পাদক মোছাঃ রিমা আক্তার,ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি মোঃ আলামিন, জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতৃীবৃন্দ সহ প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here