আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন সেই বিতর্কিত অভিনেত্রী

0
31

খবর৭১ঃ নানা আলোচিত-সমালোচিত অভিনেত্রী উর্ফি জাভেদ আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন। ইনস্টাগ্রামে দেওয়া এক পোস্টে নিজেই এ তথ্য জানান বিতর্কিত এ অভিনেত্রী। খবর নিউজ এইটিনের।

মুসলিম ছেলেদের বিয়ে করবেন না বলে ঘোষণা দেওয়া উর্ফি তার টাইমলাইনে লেখেন, জীবনের একটি মুহূর্ত ছিল যখন তিনি ভেবেছিলেন যে তিনি হেরে গিয়েছেন ৷ তাই একবার আত্মহত্যা করার কথাও ভেবেছিলেন উর্ফি জাভেদ।

তিনি লিখেছেন, আপনি ভাবতে পারবেন না যে, কতবার আমি ব্যর্থ হয়েছি? গুণেও শেষ করতে পারব না ৷ বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রকমের সমস্যায় পড়েছি মনে হয়েছে সেই সমস্যা থেকে নিষ্কৃতি পাচ্ছি না যখন তখন জীবনই শেষ করে দিই ৷

ইনস্টাগ্রামে উর্ফি আরও বলেন, আপনারা কি জানেন আমি কতবার ব্যর্থ হয়েছি? আমি তা গুনো শেষ করতে পারব না। একটা সময় আমার মনে হয়েছিল আমি আমার জীবন নিজেই শেষ করে দিই। আমার জীবন নিয়ে আমি নিজেই চরম বিরক্ত। ক্যারিয়ারে ব্যর্থতা, প্রেমে ব্যর্থতা, টাকা-পয়সার অভাবগ্রস্ত কেউ বেঁচে থাকার কোনো মানে হয় না।

একের পর এক নিজের অশ্লীল ছবি ইনস্টাগ্রামে আপলোড করে আলোচিত উর্ফি আরও লিখেছেন যে, এখনও তার কাছে প্রচুর টাকা পয়সা নেই। তিনি সিঙ্গেল, কিন্তু তার বিশ্বাস যে জীবিত থাকার একমাত্র কারণ, তিনি কখনও থেমে থাকেননি।

উর্ফি জাভেদ মনে করেন তার জীবনে এমন কিছু ঘটনা ঘটেছে যা তাকে সম্পূর্ণভাবে মেরে ফেলেছে।

প্রসঙ্গত, বিগ বস ওটিটিই উর্ফি জাভেদকে এক নতুন পরিচয় এনে দিয়েছে এটা তিনিও মনে করেন। রক্ষণশীল মুসলিম পরিবারের সন্তান বলে বহু বছর নিজের পছন্দমতো পোশাক পরতে পারেননি বলে দাবি করেছেন উর্ফি। তিনি বলেন, জিন্স পরায় নিষেধাজ্ঞা ছিল। বুক ঢাকতে হত ওড়নায়। বাধা পেতে পেতে আমি আজ এই জায়গায় পৌঁছেছি। এখন পোশাকের বিষয়ে কারও বারণ মানতে রাজি নই আমি।

উর্ফি জানান, মুম্বাইয়ে বাড়ি খোঁজার ক্ষেত্রেও তাকে অপমান সহ্য করতে হয়েছে। অনেক বাড়িওয়ালা নাকি তাকে ভাড়া দিতে চাইতেন না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here