ছাতকস্থ লাফার্জ কর্তৃক ক্রাশিং চুনাপাথর বিক্রি অবৈধ বন্ধকরনে শিল্প মন্ত্রনালয়ের নির্দেশ

0
38

হাবিবুর রহমান নাসির ছাতক প্রতিনিধিঃ
ছাতকস্থ লাফার্জ হোলসিম সিমেন্ট কারখানা কর্তৃক ক্রাশিং চুনাপাথর খোলাবাজারে বিক্রি বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। শিল্প মন্ত্রনালয়ের এক চিঠিতে চুনাপাথর থেকে সিমেন্ট ও ক্লিংকার উৎপাদন ব্যতিত নতুন পণ্য এগ্রিগেট বা খোয়া উৎপাদন ও খোলাবাজারে বিক্রি অবৈধ বলে তা অবিলম্বে বন্ধ করার নির্দেশ দেয়া হয়। গত ১৬ সেপ্টেম্বর শিল্প মন্ত্রনালয়ের বিসিআইসি অধিশাখার উপসচিব মনিরুজ্জামান সাক্ষরিত এক চিঠি থেকে এসব তথ্য জানা যায়। লাফার্জ হোলসিম সিমেন্ট কারখানার এক্সিকিউটিভ অফিসার/প্লান্ট ম্যানেজার বরাবরে দেয়া উপ সচিবের এ চিঠিতে আরো বলা হয়, ভারত থেকে আমদানীকৃত চুনা পাথর থেকে সিমেন্ট ও ক্লিংকার উৎপাদন ব্যতিত কোম্পানীর অনুমোদিত লে-আউট প্লান বা বৈধ কাগজপত্র ছাড়া নতুন পণ্য চুনাপাথর এগ্রিগেট বা খোয়া উৎপাদন বা বাজারজাতকরন অবৈধ। এসব ক্রাশিং চুনা পাথর সৃজন করে খোলাবাজারে বিক্রি করা অবিলম্বে বন্ধ করার জন্য লাফার্জ হোলসিম কর্তৃপক্ষকে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয়েছে। এদিকে ক্রাশিং চুনাপাথর খোলাবাজারে বিক্রি বন্ধ রাখতে লাফার্জ হোলসিমের বিরুদ্ধে ছাতক ব্যবসায়ী-শ্রমিক পরিষদের দীর্ঘ প্রায় এক বছর আন্দোলন অবশেষে সফল হওয়ায় ব্যবসায়ী ও শ্রমিকদের মধ্যে বইছে আনন্দের বন্যা। সোমবার রাতে শহরের লাইমষ্টোন ইম্পোর্টাস এন্ড সাপ্লায়ার্স গ্রপের কার্যালয়ে উপস্থিত উল্লাসিত ব্যবসায়ী ও শ্রমিকদের মাঝে মিষ্টি বিতরণ করা হয়।

দীর্ঘ প্রায় এক বছর লাফার্জের বিরুদ্ধে অধিকার আদায়ের আন্দোলনে সফল হওয়ায় সংশ্লিষ্ট সকল ব্যবসায়ী, ও শ্রমিকদের প্রতি অভিনন্দন ও কৃজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন লাইমষ্টোন ইম্পোর্টাস এন্ড সাপ্লায়ার্স গ্রপের প্রেসিডেন্ট, ব্যবসায়ী-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহবায়ক আহমদ শাখাওয়াত সেলিম চৌধুরী। এসময় তিনি বলেন, ছাতকের ঐতিহ্যবাহী চুনাপাথর ব্যবসা ও শ্রমিকদের অধিকার হরণ করার চেষ্টা করছিল লাফার্জ। বিভিন্ন সময় ক্রাশিং চুনা পাথর খোলাবাজারে বিক্রি বন্ধ করার কথা দিয়েও প্রতারনার আশ্রয় নিয়েছে বিদেশেী এ কোম্পানী। ছাতকের ব্যবসায়ী-শ্রমিক আইনী প্রক্রিয়ায় আন্দোলন করে আজ লাফার্জ হোলসিমের বিরুদ্ধে বিজয়ী হয়েছে। ভবিষ্যতে ব্যবসায়ী ও শ্রমিকদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থেকে কাজ করার আহবান জানান তিনি। এসময় বক্তব্য রাখেন, সাবেক পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল ওয়াহিদ মজনু, ব্যবসায়ী সৈয়দ আহমদ, ছাতক পাথর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ফজলু মিয়া চৌধুরী, সাধারন সম্পাদক হাজী আবুল হাসান, পাথর ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সাধারন সম্পাদক সামছু মিয়া, লাইমষ্টোন ইম্পোর্টাস এন্ড সাপ্লায়ার্স গ্রপের সেক্রেটারী অরুন দাস, ইউপি চেয়ারম্যান কাজী আনোয়ার মিয়া আনু, পৌর কাউন্সিলর ইরাজ মিয়া, নাজিমুল হক, ব্যবসায়ী হাজী নুরু মিয়া তালুকদার, এলাইছ মিয়া চৌধুরী, হাজী সালেহ আহমদ, হাজী আলী আসকর সোহাগ, আব্দুল হাই আজাদ, হাজী সামছুল ইসলাম, কয়েছ আহমদ, হাজী বাবুল মিয়া, ফখর উদ্দিন স্বপন, সাইফুল ইসলাম মধু, সামছুর রহমান বাবুল, নেছার আহমদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। লাফার্জ হোলসিমের কমিউনিকেশন অফিসার তৌহিদুল ইসলাম মন্ত্রনালয়ের চিঠি ২০ সেপ্টেম্বর প্রাপ্তির কথা স্বীকার করে জানান, এ চিঠি আমাদের আইজীবীদের কাছে পর্যব্ষেনের জন্য প্রেরন করা হয়েছে। আইজীবীদের মতামতের উপর ভিত্তি করে আমারা আমাদের করনীয় নির্ধারন করবো।##

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here