মদনে বাজার কমিঠির সাথে মাছ ধরা নিয়ে সংঘর্ষে নারীসহ আহত ১১, দোকান ঘর ভাংচুর

0
31

আব্দুল আওয়াল, মদন থেকেঃ নেত্রকোনার মদনে বাজার কমিঠির সাথে গোবিন্দশ্রীর বৈশাখী খালে জাল দিয়ে মাছ ধরা নিয়ে সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত ১১ জন আহত হয়েছেন। শনিবার উপজেলার গোবিন্দশ্রী বাজারের পাশে এ ঘটনা ঘটে। আহত মাইমুন আক্তার, ছকিনা আক্তারকে মদন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকী আহত রুবেল, মনিরুজ্জামান জপু, হৃদয়, জবেদা আক্তার, সাগর মিয়া, মাসুদ ইয়ার খান, আব্দুল জব্বার, পাবেল, কুতুবুল, খায়রুল পল্লী চিকিৎসকের চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ সময় বাজার কমিঠির লোকজন উত্তেজিত হয়ে হৃদয় মিয়ার চায়ের দোকানের এলইডি টিভি, দোকান ঘর ভাংচুর ও মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে গোবিন্দশ্রী বাজার কমিঠির সাথে একই গ্রামের রুবেল মিয়ার পরিবারের লোকজনের মধ্যে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। বাজার কমিঠির সভাপতি ও তার লোকজন বৈশাখী খালে জাল দিয়ে মাছ ধরতে রুবেল মিয়াকে নিষেধ করে। রুবেল ও বাজার কমিঠির সভাপতি ছোট্টন ও তার লোকজনের মধ্যে তর্কবির্তক হয়। এরই জের ধরে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ঘটনা স্থলে পুলিশ উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। রুবেল মিয়া মিয়া জানান, আমার জমিতে আমি জাল দিয়ে মাছ ধরছি এতে তাদের কি ? এটা কোন সরকারি খাল না। বাজার কমিঠির লোকজন আমার জমি দখলে নেয়ার চেষ্টা করছে। তারা আমাদের বাজারে যেতে নিষেধ করছে। বাজার কমিঠির সভাপতি ছোট্টন মিয়া জানান, রুবেল মিয়ার সরকারি খালে জাল পেলে মাছ ধরছিল। খালে জাল দেওয়ার কারণে নৌকা দিয়ে বাজারে মালামাল আনা নেয়া করা সম্ভব হচ্ছিল না। তাই খাল থেকে জাল সরানোর জন্য বলা হলে সে উত্তেজিত হয়ে পড়ে। দোকান ঘর ভাংচুর লুটপাট বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ কাজ তারা নিজেরাই করেছে। ইউপি চেয়ারম্যান নূরুল ইসলাম ছদ্দু মিয়া জানান, রুবেলকে জাল সরানোর জন্য বলা হলে সেই জাল সরানো নিয়ে বাজার কমিঠির সাথে এ সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে। ওসি ফেরদৌস আলম জানান, একটি পরিবার জাল পেলে মাছ ধরতে চেয়েছিল । কিন্তু বাজার কমিঠ মাছ ধরার জন্য নিষেধ করেন। এ জন্যই বাজার কমিঠির সাথে এ ঘটনা ঘটে। এখন পর্যন্ত কেহ অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here