সৈয়দপুরে পটকা ফুটানোর ঘটনায় বিয়ে পন্ড, কনের তালাক

0
129

মিজানুর রহমান মিলন, সৈয়দপুর থেকে : সৈয়দপুরে বিয়ে বাড়িতে পটকা ফুটানোকে কেন্দ্র করে ভেস্তে গেল কনের বিয়ে। আনন্দ-উল্লাস রূপ নিলো মারামারিতে। এতে অবরুদ্ধ বরপক্ষ ৯৯৯ জরুরী সেবায় ফোন দিলে পুলিশ এসে উদ্ধার করে তাদেরকে। অতঃপর কনে পক্ষের লোকজন কাজী ডেকে কনের তালাক করিয়ে নেয়। উপজেলার উত্তর সোনাখুলী নেছারিয়া জুম্মাপাড়ায় শুক্রবার রাতে বিয়ের আসরে ওই ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার বিকেলে কনেপক্ষ কনের তালাক করিয়ে নেয়। ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। বিলম্বে পাওয়া তথ্যে স্থানীয় সূত্র জানায়, ওই এলাকার মো. রশিদুল ইসলামের মেয়ে সুমাইয়া আক্তার স্মৃতি’র (১৯) সাথে গত ২২ এপ্রিল বিয়ে রেজিষ্ট্রি হয় একই উপজেলার পূর্ব বেলপুকুর ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের হুসেন আলীর ছেলে আরসাদুল ইসলামের। গত শুক্রবার ছিল কনে বিদায়ের দিন। রাতে বরপক্ষের লোকজন কনের বাড়িতে এলে শুরু হয় আপ্যায়ন। পরে কনে বিদায়ের সময় বরপক্ষের লোকজন কনেপক্ষের মেয়েদের জটলায় পটকা ফুটানো শুরু করে। এতে কনেপক্ষের লোকজন বাধা দিলে বর আরসাদুল তর্কে জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে উভয়পক্ষের বাকবিতন্ডা হাতাহাতিতে রূপ নেয়। কনেপক্ষের লোকজন বরপক্ষকে সারারাত আটকে রাখে। পরদিন গত শনিবার জরুরী সেবা ৯৯৯-এ বরপক্ষের লোকজনের কল পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে বরযাত্রীদের উদ্ধার করে বাড়ি পৌঁছে দেয়। এদিন বিকেলে জনপ্রতিনিধির উপস্থিতিতে বরের কাছ থেকে কনের তালাক নেয়া হয়। পরে বরপক্ষের নেয়া যৌতুক বাবদ ২ লাখ ৩০ হাজার টাকা কনে পক্ষকে বুঝিয়ে দেয়া হয়। সৈয়দপুর থানার ওসি আবুল হাসনাত খাঁন বলেন, জরুরী সেবার ফোন পেয়ে পুলিশ অবরুদ্ধ বরপক্ষের লোকজনকে উদ্ধার করে নিজ বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here