ইসরাইলের নতুন সরকারের শপথ গ্রহণ রোববার

0
31

খবর৭১ঃ
নাফতালি বেনেট এবং ইয়ার লাপিদের নেতৃত্বাধীন নতুন ঐক্যের সরকার আগামী রোববার শপথ নেবে।

মঙ্গলবার ইসরাইলের জাতীয় সংসদের স্পিকার ইয়েরিভ লেভিন এ ঘোষণা দেন।

তিনি জানান, শপথের পূর্বে সংসদে আস্থা ভোট হবে। আস্থা ভোটের তারিখ নির্ধারণ করায় সংসদ স্পিকারকে ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানিয়েছেন ইয়েস আতিদ পার্টির চেয়ারম্যান ইয়ার লাপিদ।

এক টুইটবার্তায় তিনি বলেন, অবশেষে এটা হচ্ছে। ইসরাইলের নাগরিকদের কল্যাণে ঐক্যের সরকার শপথ নিতে যাচ্ছে।

এদিকে ইয়ামিনা পার্টির সংসদ সদস্য নির্বাচন ইসরাইলের নতুন জোট সরকারকে সমর্থন দেবেন বলে জানিয়েছেন। তার এ ঘোষণার মধ্যে দিয়ে নতুন জোটের সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে শপথ নিতে আর বাধা থাকছে না। ইয়ামিনার এই সংসদ সদস্য নতুন জোট সরকারকে সমর্থন না দিলে ১২০ আসনের মধ্যে ৬১ আসনের সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ার আশঙ্কা ছিল।

আগামী রোববার ইসরাইলে নতুন সরকার গঠন হলে দেশটিতে বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু যুগের অবসান ঘটবে। বিগত ১২ বছর যাবৎ তিনি ইসরাইল শাসন করছেন।
নতুন জোটের সরকার গঠন নিশ্চিত জেনে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, সংসদে তিনি বিরোধী দলীয় নেতা হিসেবে থাকবেন।

বিশ্লেষকরা বলছেন, নেতানিয়াহু বিরোধী দলীয় নেতা হলে চুপচাপ বসে থাকবেন না। তার আভাস এখনই স্পষ্ট। তিনি ইতোমধ্যে বিরোধী দলগুলোর জোটের সম্ভাব্য সরকারকে ইসরাইলের নিরাপত্তা ও জনগণের জন্য বিপজ্জনক হিসেবে চিহ্নিত করেছেন।

কয়েকদিন আগে এক টুইটবার্তায় বেনেটের তীব্র সমালোচনা করেন নেতানিয়াহু। সেখানে লাপিদ-বেনেট সরকার ইসরাইলের জন্য বিপজ্জনক হবে উল্লেখ করেন।

ইসরাইলে নতুন সরকার গঠনের আমেজে দেশটির বর্তমান প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেনি গ্যান্টজ টুইটারে এক পোস্টে বলেছেন, আগামী রোববার ইসরাইল নতুন পথে যাত্রা করতে যাচ্ছে।

ইসরাইলে সম্প্রতি ইয়েস আতিদ পার্টির চেয়ারম্যান ইয়ার লাপিদের নেতৃত্বে ৮ দল মিলে একটি জোট গঠিত হয়েছে।

চুক্তি অনুযায়ী, প্রথম দুই বছর প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন নাফতালি বেনেট। এরপর দায়িত্ব নেবেন ইয়ার লাপিদ। আগামী রোববার দেশটির পার্লামেন্টে ১২০ আসনের মধ্যে ৬১ আসন পেলে সরকার গঠন করতে পারবে নতুন এ জোট। অন্যথায় ইসরাইলে দুই বছরে পঞ্চমবারের মতো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here