নতুন কর্মক্ষেত্রে যেভাবে মানিয়ে নেবেন নিজেকে

0
36

খবর৭১ঃ নতুন অফিস মানে নতুন পরিবেশ। নতুন সব মানুষের সঙ্গে পরিচিত হওয়া। সেখানে ভালো- ধুরন্দর দুই ধরনের মানুষই থাকে। তাদের ভিড়ে ভালো সহকর্মীকে খুঁজে পেতে সময় লেগে যায়। এসব কারণে নতুন কর্মস্থলে নিজেকে মানিয়ে নিতে সময় লেগে যায়।

সততা, ধৈর্য ও মানসিক দৃঢ়তা আর আত্মবিশ্বাস বজায় রেখে কাজ করে গেলে দেখবেন খুব সহজেই নতুন সহকর্মীরা আপনার অতি আপনজন হয়ে উঠবে।

নতুন কর্মস্থলে নিজেকে মানিয়ে নেওয়ার কিছু টিপস দেওয়া আছে মনস্টার ডটকমে। সেই আলোকে আপনিও চেষ্টা করতে পারেন।

১. সব অফিসের একটা সুনির্দিষ্ট শৃঙ্খলা থাকে। নতুন কর্মস্থলে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে— সেখানে শৃঙ্খলা বজায় রাখা। কর্মস্থলের শৃঙ্খলা মেনে সেটির সঙ্গে তাল মিলিয়ে চললেই সেখানে নিজেকে মানিয়ে নেওয়াটা অনেক সহজ হয়ে ওঠে।

২. সকালে ঘুম থেকে উঠে নিজের ভেতরে সারাদিন কি কি করবেন তার একটি পরিকল্পনা করে নিতে হবে। সবক্ষেত্রে নিজেকে মানিয়ে নেওয়ার পেছনে মূলমন্ত্রই হিসেবে কাজ করে গুছিয়ে নিজের কাজ করা। সুনির্দিষ্ট সময়ে অফিসে আসা, অপ্রয়োজনে কখনও দেরি না করা। অফিসের পরিস্থিতি ও প্রয়োজনীয়তা বুঝে যে কাজগুলো আগে করা উচিত, সেগুলো প্রথমে সেরে ফেলতে হবে।

৩. কর্মস্থলে মানিয়ে নেওয়ার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে— সহকর্মীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখা। একে অপরের সঙ্গে পরিচিত হওয়ার পর তাদের সঙ্গে দেখা হলেই সৌজন্যমূলক কথা বলুন।

৪. নতুন কোনো কর্মস্থলে যুক্ত হওয়ার পর পুরো অফিস সম্পর্কে একটা ধারণা নিতে একটু সময় নিতে হবে। বস ও সহকর্মীদের কথা মন দিয়ে শুনতে হবে আগে।

৫. এমনভাবে সবার সঙ্গে কথা বলতে হবে, যাতে কেউ কোনো কথায় কষ্ট না পায়।

৬. কাজের গুণগত মান ভালো করার পেছনে ভালো পরিবেশ অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। সে জন্য নিজের বসার জায়গায় ফুল বা গাছ অথবা পছন্দের ছোটখাটো জিনিস দিয়ে মনের মতো করে সাজিয়ে রাখতে পারেন।

৭. কর্মস্থলে কোনো ধরনের সমস্যায় পড়লে অবশ্যই বস বা অফিস কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে।

৮. কর্মক্ষেত্রে গিয়ে নিজের ব্যক্তিগত কাজ, যেমন— সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সময় কাটানো বা ফোনে বেশি কথা বলা যাবে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here