হেফাজতের পদ প্রত্যাখ্যান শফীপুত্রের

0
38

খবর৭১ঃ হেফাজত ইসলামের সদ্য ঘোষিত কেন্দ্রীয় কমিটির সহকারী মহাসচিব পদ প্রত্যাখ্যান করেছেন সংগঠনের প্রয়াত আমির শাহ আহমদ শফীর বড় ছেলে মাওলানা ইউসুফ মাদানি। এমন কি নতুন কমিটিতে নিজের নাম দেখে মর্মাহত হয়েছেন বলে জানান তিনি।

সোমবার হেফাজতের নতুন কমিটি ঘোষণার পরই হাতে লেখা এক চিঠিতে পদ প্রত্যাখানের ঘোষণা দেন তিনি। নতুন কমিটিতে তাকে ২ নং সহকারী মহাসচিবের পদ দেয়া হয়েছিল।

আল্লামা শফীর মৃত্যুর পর গত বছরের নভেম্বরে হেফাজতের যে সম্মেলন হয়, তাতে শফীর অনুসারী সবাইকে বাদ দেয়া হয়। এমনকি সম্মেলনে কাউকে আমন্ত্রণও জানানো হয়নি।

এরপর গত মার্চে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরের প্রতিবাদে নেমে সহিংসতায় জড়ালে হেফাজতের কেন্দ্রীয় কমিটি ভেঙে দেয়া হয় ২৫ এপ্রিল। ওই রাতেই গঠন করা হয় আহ্বায়ক কমিটি। এর দেড় মাস পর ঢাকায় সংবাদ সম্মেলন করে নতুন যে কমিটি ঘোষণা করল সংগঠনটির আহবায়ক কমিটি।

নতুন এই কমিটিতে বিএনপি-জামায়াতের সঙ্গে জোটবদ্ধ কওমি মাদ্রাসাকেন্দ্রিক কোনো নেতাকে রাখা হয়নি। আর চমক ছিল আল্লামা শফীর বড় ছেলে ইউসুফ মাদানীর অন্তর্ভুক্তি।

রাজধানীর খিলগাঁওয়ের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এই কমিটি ঘোষণা করেন মহাসচিব নুরুল ইসলাম জিহাদী। তবে সেখানে ছিলেন না ইউসুফ মাদানী। আনুষ্ঠানিক কমিটি ঘোষণার পরে তিনি হাতে লেখা একটি বিবৃতি পাঠান গণমাধ্যমে।

বিবৃতিতে হেফাজতের নতুন কমিটিকে ‘তথাকথিত’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘কেন্দ্রীয় কমিটিতে আমার নাম দেখে আমি মর্মাহত। অতএব যে বা যাহারা আমার পিতাকে কষ্ট দিয়ে দুনিয়া থেকে বিদায় দিয়েছেন তাদের সঙ্গে আমি কখনও এক হতে পারি না।’

এরআগে, নতুন কমিটি ঘোষণার সময়ে বর্তমান কমিটির মহাসচিব নুরুল ইসলাম জিহাদীকে তাদের অবস্থানের কথা জানতে চাওয়া হয়। তখন তিনি বিবাদের কথা অস্বীকার করেন বলেন, ‘আমাদের সঙ্গে তার যখন কথা হয়েছে তখন তিনি কমিটিতে থাকবেন বলে জানিয়েছেন। তিনি কমিটি মানেন না বলে যদি কোনো কথা বলে থাকেন, সেটা সাংবাদিকদের কাছে বলেছেন। আমাদেরকে এই রকম কিছু বলেন নাই।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here