৪৮ ঘণ্টায় দাবি না মানলে রাস্তায় নামবে বাইকাররা

0
12

খবর৭১ঃ
রাজধানীর প্রেসক্লাব ও শাহবাগসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক অবরোধ করে সরকারের ১৪ দিনের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের রাইড শেয়ারিং অ্যাপ ব্যবহারকারী বাইক চালকরা। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন তারা।

বাইকারদের দাবি, শাহবাগ অবরোধের সময় পুলিশের কর্মকর্তারা তাদের সঙ্গে কথা বলেছেন। তখন পুলিশ তাদের কাছে ৪৮ ঘণ্টা সময় নিয়েছেন। পরে পুলিশের পক্ষ থেকে আশ্বাস পেয়ে তারা রাস্তা থেকে অবরোধ তুলে নিয়েছেন। তবে পুলিশ বলছে ভিন্ন কথা।

শাহবাগ অবরোধের সময় বাইক রাইডার মোহাম্মদ শরীফ ঢাকাটাইমসকে বলেন, রাইড শেয়ারকারীদের ৯৯ শতাংশ শিক্ষিত যুবক। করোনার কারণে কারও চাকরি চলে গেছে, কারও ব্যবসা ধ্বংস হয়ে গেছে। আজকে আমরা বাইক রাইড শেয়ার করে পেট চালাই। যদি আমাদের রাইড শেয়ার বন্ধ হয়ে গেলে আমরা খাবো কী। আজ আমি কাজ না করলে কাল আমার চুলায় আগুন জ্বলবে না। ১৪ দিন সরকার রাইড শেয়ার বন্ধ করতে বলেছে। আমাদের জীবিকার সন্ধান না দিয়ে সরকার এভাবে রাইড শেয়ার বন্ধ করতে পারে না। আমরা রাইড শেয়ারের দাবিতে আজ রাস্তায় নেমেছি।

দাবির কথা জানিয়ে সাব্বির বলেন, আমাদের প্রধান দাবি, আমাদের রাইড শেয়ার চলবে। দ্বিতীয় দাবি, পুলিশ যেখানে যত্রতত্র যা ইচ্ছা মামলা দিচ্ছে সে মামলা দেয়া বন্ধ করতে হবে। ৫০০০, ৭০০০, ৩০০০ টাকা, পুলিশ যখন-তখন যেভাবে ইচ্ছে মামলা দেয়। এ মামলা দেয়া বন্ধ করতে হবে।

‘পুলিশের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। তারা বলেছেন ৪৮ ঘণ্টা সময় দেয়ার জন্য। ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে যদি রাইড শেয়ার খুলে না দেয়া হয়, তবে আগামী রবিবার সকাল ১০টায় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শাহবাগে জড়ো হবো।’-বলেন সাব্বির।

বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে রমনা জোনের এডিসি ফয়েজুর রহমান বলেন, বাইকাররা তাদের অবস্থান আমাদের বুঝিয়েছেন। আমরা তাদের বুঝিয়েছি যে, এটা তো সরকারি নির্দেশনা। কোভিড পরিস্থিতি যে অবস্থা তাতে আপনারাও ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। বরং সহযোগিতা করলে কয়েকদিনের মধ্যে যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যায় তখন আবার শুরু করবেন। তখন তারা এটা মেনে নিয়েছেন।

তিনি বলেন, বাইকাররা যেভাবে শুরু করেছিল ওভাবে রাস্তা আটকে রাখে নাই। শাহবাগ-প্রেসক্লাব কোথাও রাস্তা একেবারে ব্লক করে নাই। তারাও পরিস্থিতি বুঝে। তারা তাদের অবস্থাটা সরকারকে জানাতে চায়। আমরাও তাদের সহযোগিতা করেছি বিষয়টা সরকারকে জানাতে। আ%B