স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে জবির শ্রদ্ধাঞ্জলি

0
71

জবি প্রতিনিধি: মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মুজিব মঞ্চে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

শুক্রবার (২৬ মার্চ) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. কামালউদ্দিন আহমেদ পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এদিন ভোরে জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণের জন্য গেলেও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আগমনে নিরাপত্তা জোরদারের কারণে ভিতরে প্রবেশ করা যায়নি। তারপর আবার ফিরে এসে বিশ্ববিদ্যালয়েই পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

পুষ্পস্তবক অর্পণের সময় বিশ্ববিদ্যালয় বিভিন্ন অনুষদের ডিন, ইনস্টিটিউটের পরিচালক, রেজিস্ট্রার, প্রক্টর, বিভাগীয় চেয়ারম্যান, দপ্তর প্রধান, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং ছাত্রনেতারা উপস্থিত ছিলেন।

উপাচার্যের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় নীলদল, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন একে একে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। এসময় মহান স্বাধীনতা সংগ্রামে বীর শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়।

এর আগে সকালে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. কামালউদ্দিন আহমেদ বলেন, “আমাদের অনেক দূর এগিয়ে যেতে হবে। মুজিব আদর্শ ধারণ করে সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে আমরা প্রত্যেকেই নিজ নিজ জায়গা থেকে কাজ করে যেতে হবে৷”

উল্লেখ্য যে, এ বছর ২৬শে মার্চ সারাদেশেই বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপিত হচ্ছে। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে সরকার বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করলেও করোনা মহামারির কারণে তা সীমিত করা হয়েছে। ১৭ মার্চ থেকে ২৬ মার্চ পর্যন্ত সরকারিভাবে নানান কর্মসূচির মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপিত হচ্ছে। বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধানসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ এই অনুষ্ঠানে যোগদান করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here