সৈয়দপুরে আগুনে মতিরবাজারে আগুনে ১১টি দোকান ভস্মিভূত

0
41
প্রতিকী ছবি

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি: নীলফামারীর সৈয়দপুরে আগুনে একটি বাজারের ১১টি দোকান ভস্মিভূত হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাত সোয়া তিনটার দিকে উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের এক নম্বর ওয়ার্ডের মতিরবাজারে এ ভয়াবহ আগুনের ঘটনাটি ঘটে। আগুনে প্রায় অর্ধকোটির টাকার মালামাল পুড়ে ছাঁই হয়ে গেছে বলে দোকান মালিকদের দাবি।
আগুনে ক্ষতিগ্রস্থ দোকান মালিক সূত্রে জানা গেছে, প্রতিদিনের মতো ঘটনার দিন রাতেও মতির বাজারের দোকান মালিকরা তাদের দোকানপাট বন্ধ করে নিজ নিজ বাড়িতে চলে যান। ওই দিন রাত আনুমানিক সোয়া তিনটার দিকে বাজারে আকস্মিক আগুনের ঘটনা ঘটে। বাজারের একটি মুদি দোকান ঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে তা আশপাশের দোকানঘরগুলোতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। পরে আশপাশের লোকজন মতির বাজারে আগুনের বিষয়টি টের পেয়ে দ্রুত ছুঁটে আসেন এবং সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিস অফিসে খবর দেয়। খবর পেয়ে সৈয়দপুর, উত্তরা ইপিজেড ও নীলফামারী দমকল বাহিনীর তিনটি ইউনিটের সদস্যরা এসে প্রায় পৌণে দুই ঘটনা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন। কিন্তু তার আগেই আগুনের লেলিহান শিখায় মতিরবাজারের ১১টি দোকান ঘরের সম্পূর্ণ মালামাল পুড়ে ছাঁই হয়ে যায়। আগুনে পুড়ে যাওয়া দোকানগুলোর মধ্যে রয়েছে মুদি, হোটেল, বস্ত্র, সেলুন, কীটনাশক, ওষুধ, বৈদ্যূতিক সামগ্রী, মুরগী ও পান দোকান। গভীর রাতে এ আগুনের ঘটনায় দোকানগুলোর কোন কিছুই রক্ষা করা যায়নি। আগুনের সঠিক কারণ জানা যায়নি। তবে বৈদ্যূতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হয়।
এলাকাবাসী সমাজসেবক ডা. মো. সুরত আলী বাবু জানান, আগুনের দোকান মালিকেরা নিঃস্ব হয়ে গেছে। আর ফায়ার সার্ভিস বাহিনীর সদস্যরা যথাসময়ে না পৌঁছলে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বেশি হতো।
সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. খুরশীদ আলম বলেন, আগুনের সঠিক কারণ জানা যায়নি। তবে বৈদ্যূতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয়। আর আগুনের সঠিক কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপনে তদন্ত করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here