মৈত্রী সেতুর উদ্বোধন

0
73

খবর ৭১: ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভারত বাংলাদেশকে সংযুক্ত করা মৈত্রী সেতু উদ্বোধন করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

উদ্বোধনের সময় ভিডিও বার্তায় বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাজনৈতিক সীমানা বাণিজ্যের ক্ষেত্রে ভৌত বাধা হয়ে উঠা উচিত নয় বলে মঙ্গলবার মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘আমরা এমন একটি অঞ্চলে রয়েছি যা চালু হওয়ার ক্ষেত্রে রক্ষণশীল হয়ে আছে এবং যেখানে আন্তঃআঞ্চলিক বাণিজ্য তার সম্ভাবনার থেকে অনেক নিচে। আমি বিশ্বাস করি যে রাজনৈতিক সীমাবদ্ধতা ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে ভৌত বাধা হয়ে উঠা উচিত নয়।’

ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য ও বাংলাদেশের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত ফেনী নদীর ওপর নির্মিত হয়েছে এই মৈত্রী সেতু। ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক ও বন্ধুত্বকে প্রতিনিধিত্ব করে ‘মৈত্রী সেতু’ নামটি।

ভারতের ন্যাশনাল হাইওয়েস অ্যান্ড ইনফ্রাস্টাকচার ডেভেলপমেন্ট করপোরেশন লিমিটেডের (এনএইচআইডিসিএল) তত্ত্বাবধানে সেতু নির্মাণ প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছিল ১৩৩ কোটি রুপি। ১.৯ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সেতুটি ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের সাবরুম ও বাংলাদেশের খাগড়াছড়ির রামগড়কে সংযুক্ত করেছে।

ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে বাণিজ্যের ও দেশ দুটির মধ্যে মানুষের চলাচলের ক্ষেত্রে নতুন অধ্যায় সূচনা সেতুটি এমনটাই আশা করা হচ্ছে। অনুষ্ঠানে সাবরুমের চেকপোস্টের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন নরেন্দ্র মোদি।

দেশ দুটির মধ্যে পণ্য ও যাত্রী পরিবহন সহায়তা করবে এটি, এছাড়াও ভারতের উত্তর পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলোর পণ্যের নতুন বাজার পাওয়ার সুযোগ সৃষ্টি হবে। ভারত- বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ- ভারতে যাত্রী যাতায়াতও সহজ হবে অনেকটাই। প্রকল্পটির দায়িত্ব পাওয়া ভারতীয় স্থল বন্দর কর্তৃপক্ষ প্রকল্পের ব্যয় নির্ধারণ করেছে ২৩২ কোটি রুপি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here