৯ মাসে সবচেয়ে কম শনাক্ত

0
31
শনাক্তের হার কমে ৩.৩৪ শতাংশ, মৃত্যু ২০

খবর৭১ঃ গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে আরও ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট ৮ হাজার ১১১ জনের মৃত্যু হলো করোনায়। এছাড়া গত একদিনে প্রায় নয় মাস পর করোনা শনাক্তের সংখ্যা তিনশোর ঘরে নেমেছে। গত একদিনে শনাক্ত হয়েছেন ৩৬৩ জন। এরচেয়ে কম রোগী শনাক্ত হয়েছিলেন গত বছরের ২৫ এপ্রিল। সেদিন ৩০৯ জন রোগী শনাক্তের কথা জানানো হয়েছিল।

শনিবার বিকালে সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির সবশেষ এই তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশের ২০৪টি ল্যাবে ১২ হাজার ৮৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এতে শনাক্ত হন ৩৬৩ জন। এ পর্যন্ত ৩৬ লাখ ৩৯ হাজার ৪৯৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এতে মোট শনাক্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৩৪ হাজার ৭৭০ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, গত একদিনে মারা গেছেন ১৭ জন। নতুন মারা যাওয়া ১৭ জনকে নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৮ হাজার ১১১ জন। গত এক দিনে যারা মারা গেছেন, তাদের মধ্যে পুরুষ ১০ জন ও নারী ৭ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে গত এক দিনে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ৩৩৭ রোগী করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন। তাদের নিয়ে এ পর্যন্ত সুস্থ রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ লাখ ৭৯ হাজার ২৯৭ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার কমে ৩ শতাংশে নেমেছে। এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৬৯ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৯ দশমিক ৬৩ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫২ শতাংশ।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গত ৮ মার্চ; তা সোয়া ৫ লাখ পেরিয়ে যায় গত ১৪ জানুয়ারি। এর মধ্যে গতবছরের ২ জুলাই ৪ হাজার ১৯ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ শনাক্ত।

প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর গতবছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ২৯ ডিসেম্বর তা সাড়ে সাত হাজার ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে গত বছরের ৩০ জুন এক দিনেই ৬৪ জনের মৃত্যুর খবর জানানো হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ মৃত্যু।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here