ঝালকাঠিতে জমি দখল ও মাদ্রাসা শিক্ষককে হয়রানির অভিযোগ

0
73
ঝালকাঠিতে জমি দখল ও মাদ্রাসা শিক্ষককে হয়রানির অভিযোগ

রতন আচার্য্য ঝালকাঠি প্রতিনিধ:ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার পূর্ব আঙ্গারিয়া এতিমখানা ও হাফিজিয়া মাদ্রাসার জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় বাসিন্দা মৃত আবুল হোসেনের স্ত্রী তাছলিমা বেগম ও তাঁর ছেলে আবদুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে এ পায়তারা চালিয়ে আসছেন। শনিবার দুপুরে ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা মো. ফরিদুজ্জামান তালুকদার। মাদ্রাসার জমি দখলে নিতে না পেরে তারা আদালতে মিথ্যা অভিযোগে মামলা করেও হেরে যান। এখনো থেমে নেই তাদের জমি দখলের তৎপরতা। মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ ও শিক্ষকদের নামে অপপ্রচার চালানোরও অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে। সংবাদ সম্মেলনে মো. ফরিদুজ্জামানের ছেলে আঙ্গারিয়া আলিম মাদ্রাসার শিক্ষক ও ইসলামী বক্তা মাওলানা আমিনুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

লিখিত বক্তব্যে মো. ফরিদুজ্জামান তালুকদার জানান, রাজাপুর উপজেলার আঙ্গারিয়া আলিম মাদ্রাসা, পূর্ব আঙ্গারিয়া এ এস বালিকা মাদ্রাসা ও পূর্ব আঙ্গারিয়া এতিমখানা ও হাফিজিয়া মাদ্রাসাসহ একাধিক প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠা করেছেন তিনি। তাঁর নানা মো. ইসমাইল তালুকদার ১৫ শতাংশ জমি এতিমখানা, মাদ্রাসা ও মসজিদের নামে দান করে যান। প্রতিষ্ঠানগুলোর পরিসর বৃদ্ধির জন্য ২০১৯ সালের ১৬ অক্টোবর ৫ শতাংশ জমি স্থানীয় নূরজাহান বেগমের ওয়ারিশদের কাছ থেকে কিনে নেন। পরবর্তীতের প্রতিবেশী মৃত আবুল হোসেনও নুরজাহানের ওয়ারিশদের কাছ থেকে কিছু জমি ক্রয় করেন। কিন্তু আবুল হোসেনের মৃত্যুরপর তার স্ত্রী তাছলিমা বেগম ও তাঁর ছেলে আবদুর রহমান তাদের জমির পাশে হওয়ায় একইসাথে মাদ্রাসার ক্রয় করা ৫শতাংশ জমি কয়েক দফায় দখলে নেওয়ার চেষ্টা করেন। এতে ব্যর্থ হয়ে তারা নানা ষড়যন্ত্র শুরু করেন। এক পর্যায়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা বিষয়টি সমাধানে চলতি বছরের ৮ জানুয়ারি রোয়েদাদ করে দেন। জমি নিতে না পেরে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here