রাশিয়া ইরান ও চীনের সাইবার হামলার হুমকি হোমল্যান্ড সিকিউরিটির সর্তকতা

0
47
রাশিয়া ইরান ও চীনের সাইবার হামলার হুমকি হোমল্যান্ড সিকিউরিটির সর্তকতা

খবর৭১ঃ
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন আগামীকাল। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকাল ৬টা (বাংলাদেশ সময় বিকাল ৫টা) থেকে শুরু হবে ভোট গ্রহণ। রাজ্যভেদে ভোট গ্রহণের সময়সীমা হেরফের হবে।

এবারের নির্বাচনেও সাইবার আক্রমণের হুমকির খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া নির্বাচনের দিন ভোটকেন্দ্রে এবং পরবর্তীতে সারা দেশে ব্যাপক সহিংসতার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সাইবার হামলা মোকাবেলায় যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি রাজ্য ও ডিসট্রিক্ট অব কলম্বিয়ায় (ওয়াশিংটন ডিসি) সর্বোচ্চ সতর্কমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের হোমল্যান্ড সিকিউরিটি।

অন্যদিকে নির্বাচনের দিন সারা দেশে ও নির্বাচন পরবর্তী যেকোনো সহিংসতা রোধেও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা না হওয়া পর্যন্ত হ্যাকারদের বিরুদ্ধে প্রযুক্তির যুদ্ধ ঘোষণা করেছে হোমল্যান্ড সিকিউরিটির সাইবার সিকিউরিটি ইউনিট।

এবারের নির্বাচনে ভোটাররা যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট, ৩৫ জন সিনেটর এবং ৪৩৫ জন হাউজ অব রিপ্রেজেন্টিটিভ নির্বাচন করবেন। এছাড়াও রাজ্যভিত্তিক বিভিন্ন পদে নির্বাচন হচ্ছে। যিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হবেন ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হবেন তার রানিংমেট হিসাবেই।

নির্বাচনে রিপাবলিকান প্রার্থী ও বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড জে. ট্রাম্প এবং ডেমোক্রেটিক প্রার্থী ও সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জোসেফ আর. বাইডেন জুনিয়রের মধ্যে তীব্র লড়াই হতে পারে। তবে জনমত জরিপে জো বাইডেন ট্রাম্পের চেয়ে অনেকটা এগিয়ে রয়েছেন।

এমনকি ব্যাটলগ্রাউন্ড ১৪টি রাজ্যে ট্রাম্পের সঙ্গে তার হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে পারে। বাংলাদেশসহ গোটা বিশ্বের নজর যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের দিকে। তবে শেষ মুহূর্তেও বলা যাচ্ছে না কে হচ্ছেন হোয়াইট হাউজের পরবর্তী বাসিন্দা।

২০১৬ সালের নির্বাচনে রাশিয়ার হ্যাকারদের সাইবার আক্রমণের হুমকি ছিল। এবারের নির্বাচনে নতুন হুমকি এসেছে ইরান ও চীনের হ্যাকারদের কাছ থেকে। এ কারণে ৫০টি রাজ্যে নির্বাচনের দিন ভোটকেন্দ্রগুলোতে বাড়তি সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেবে হোমল্যান্ড সিকিউরিটির সাইবার সিকিউরিটি ইউনিট। আশঙ্কা করা হচ্ছে সাইবার আক্রমণ চালিয়ে ভোটারদের সব তথ্য, বিশেষ করে নাম, ঠিকানা, ইমেইল ও টেলিফোন নম্বর মুছে ফেলা হতে পারে।

রাশিয়ার আক্রমণের পুনরাবৃত্তি এবং চীন ও ইরানের নতুন হুমকি প্রতিরোধে ইতিমধ্যে বিভিন্ন রাজ্যে মিলিটারি সাইবার হান্টার ইউনিট প্রযুক্তির এই যুদ্ধ মোকাবিলার প্রস্তুতি নিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের হোমল্যান্ড সিকিউরিটির বরাত দিয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, সাইবার আক্রমণের সম্ভাব্য নতুন হুমকিদাতা দেশ এবার চীন ও ইরান। তাদের আক্রমণের প্রধান লক্ষ্য ব্যাটলগ্রাউন্ড রাজ্য। এ কারণে এসব রাজ্যে মোতায়েন করা হয়েছে বিশেষ মিলিটারি ইউনিট।

ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, নির্বাচনের দিন হোমল্যান্ড সিকিউরিটির সাইবার সিকিউরিটি এবং ইনফ্রাস্ট্রাকচার সিকিউরিটি এজেন্সি একটি ভার্চুয়াল ওয়ার রুম চালু করবে, যাতে সারাদেশে নির্বাচন কর্মকর্তারা সন্দেহজনক ক্রিয়াকলাপ সম্পর্কে তথ্য আদান প্রদান করতে পারে। গোয়েন্দা সংস্থাগুলো নির্বাচনের শ্রেণিবদ্ধ তথ্যের পাশাপাশি নির্বাচনকে দুর্বল করে তুলতে চাইছে এমন প্রচেষ্টা শনাক্ত করবে এবং কীভাবে এই ধরনের আক্রমণ থেকে রক্ষা পাওয়া যায় সে বিষয়ে পরামর্শ দেবে।

এদিকে করোনা ভাইরাস মহামারির কারণে এবারের নির্বাচনে রেকর্ডসংখ্যক আগাম ও ডাকযোগে ভোট পড়েছে। ইতিমধ্যে প্রায় ৯ কোটি ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছে, যা ভোট ভোটের ৬৭ শতাংশ। বাকীরা আজ সশরীরে কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেবেন।

যেহেতু বিপুল মানুষ ডাকযোগে ভোট দিয়েছেন, এ কারণে এবারের নির্বাচনের ফল পেতে দেরী হতে পারে। এমনকি প্রাথমিক ফলাফলে কোনো প্রার্থী এগিয়ে থাকলেও পরে সেটা বদলে যেতে পারে। এ কারণে নির্বাচনের ফলাফল নিয়েও বড় ধরনের উত্তেজনা তৈরির আশঙ্কা রয়ে গেছে।

২০১৬ সালের নির্বাচনে ডেমোক্রেট প্রার্থী ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটনকে পরাজিত করে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন ধনকুবের ব্যবসায়ী ও টিভি ব্যক্তিত্ব ডোনাল্ড ট্রাম্প। ওই নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের অভিযোগ উঠেছিল। তবে তা আইনগতভাবে প্রমাণিত হয়নি।

এবার এমন এক সময় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হচ্ছে যখন দেশটিতে করোনা মহামারি চলছে। গত সাত মাসে করোনা ভাইরাসে দেশটিতে ২ লাখ ১০ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এই বিপুলসংখ্যক মানুষের মৃত্যুর দায় এড়িয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সদর্পে নির্বাচনে অংশ নিয়ে আরো চার বছর হোয়াইট হাউজে থাকবেন বলে জোর আশা ব্যক্ত করেছেন।

মহামারি নিয়ন্ত্রণের ব্যর্থতা ভোটের সিদ্ধান্তে কতটুকু প্রভাব ফেলবে তা জানা যাবে ফল প্রকাশের পর। জনমত জরিপে পিছিয়ে থাকলেও শেষ মুহূর্তে তা অনেকখানি কমিয়ে এনেছেন ট্রাম্প

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here