সৈয়দপুরের উর্দূভাষী নেতৃবৃন্দের সঙ্গে উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি বাদলের মতবিনিময়

0
118
সৈয়দপুরের উর্দূভাষী নেতৃবৃন্দের সঙ্গে উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি বাদলের মতবিনিময়

মিজানুর রহমান মিলন, সৈয়দপুর প্রতিনিধি:

নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরে ২২টি ক্যাম্পে বসবাসরত উর্দূভাষী নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র আখতার হোসেন বাদল।

আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে গতকাল সোমবার রাতে শহরের বিমানবন্দর সড়কের ইকু হেরিটেজ এন্ড রিসোর্ট সেন্টারে ওই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। শহরের দুর্গা মিল উর্দূভাষী ক্যাম্পের সভাপতি মোহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য বলেন সানজিদা বেগম, মোনায়েম হোসেন মো. ওয়াকিল, সোনি বেগম, মো. মিস্টার, সালাহউদ্দিন, মো. টেক্কা, বিপিয়া বেগম, জব্বার ইকবাল, হামিদা বেগম, উর্দু কবি সারার হামিদ ওরফে সালাম সৈয়দপুরী। সভায় আগত উর্দুভাষী নেতারা তাদের বক্তব্যে শহরের ২২টি উর্দূভাষী ক্যাম্পের বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরেন। তারা বলেন এদেশে সমান অধিকারের ভিত্তিতে বসবাস করতে চান। অথচ নির্বাচনের সময় এলেই বিহারী বাঙ্গালী, রাজাকার, আলবদর, যুদ্ধাপরাধীসহ বিভিন্ন ইস্যূ তুলে আমাদের বিভক্ত করা হয়। তারা বলেন, কেউ যুদ্ধাপরাধী প্রমাণিত হলে তাকে আইনী প্রক্রিয়ায় শাস্তির আওতায় আনা হোক। আর বাঙালী-বিহারী ধোয়া না তুলে মিলেমিশে অবস্থান করার পরিবেশ সৃষ্টির আহবান জানান তারা। মত বিনিময় সভায় সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র মো.আখতার হোসেন বাদল বলেন,আওয়ামীলীগের কান্ডারী আমাদের অভিভাবক জননেত্রী শেখ হাসিনা।

দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখতে তিনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনার আলোকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বাস্তবায়নে দেশ ও দলকে স্বাধীনতা বিরোধীদের কবল থেকে মুক্ত করতে চাইছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলোকে যুদ্ধাপরাধী, রাজাকার, আলবদর, আল সামস্,মুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছেন। এতে করে কে দলে থাকবে, আর কে দলে থাকবে না তা তিনিই সিদ্ধান্ত ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন। আখতার হোসেন বাদল নিজেকে সৈয়দপুর পৌরসভার মেয়র প্রার্থী ঘোষণা দিয়ে বলেন সৈয়দপুরের উন্নয়নের জন্য, সৈয়দপুরের মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্যই আওয়ামী লীগ তথা নৌকা মার্কার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হবে। তিনি তার বক্তব্যে আরও বলেন আওয়ামী লীগ সরকার দেশকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিণত করতে একের পর এক মহাপরিকল্পনা গ্রহণ এবং বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। সৈয়দপুরেও ব্যাপক উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। এজন্যই এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে হবে। একই সঙ্গে তিনি বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলোকে যুদ্ধাপরাধী, রাজাকার, আলবদর, আল সাসমস মুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছেন। তিনিই এই ঘোষণা বাস্তবায়ন করবেন। এতে করে কে দলে থাকবে, আর থাকবে না তা বিবেচ্য বিষয় নয় জানিয়ে তিনি বলেন মুজিব সৈনিক হিসেবে জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অক্ষরে অক্ষরে পালন করা হবে। সাবেক মেয়র আখতার হোসেন বাদল নির্বাচন প্রসঙ্গে বলেন পৌরসভা নির্বাচনের সময় ঘনিয়ে এলেই নানা ধরনের অপতৎপরতা শুরু করে একটি স্বার্থান্বেষী মহল। তিনি উর্দুভাষী নেতৃবৃন্দদের সেসব ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান।

অনুষ্ঠান সঞ্চালন করেন উর্দূভাষী ক্যাম্প উন্নয়ন কমিটির সভাপতি মাজেদ ইকবাল। এর আগে সভার শুরুতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সদস্য ও ২১ শে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে এক মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here