সৈয়দপুরে ক্রেতা সেজে মাদক ব্যবসায়ীকে ধরলো পুলিশ

0
584
সৈয়দপুরে ক্রেতা সেজে মাদক ব্যবসায়ীকে ধরলো পুলিশ

মিজানুর রহমান মিলন, সৈয়দপুর প্রতিনিধিঃ সৈয়দপুর থানা পুলিশের ফাঁদে পড়ে গাঁজাসহ ধরা খেলেন পুলিশের তালিকায় থাকা শহরের চিহৃিত মাদক ব্যবসায়ী বাবু ওরফে জঞ্জালু (৪২)। পরে তাঁকে গাঁজাসহ ঘটনাস্থলেই ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও দুই হাজার টাকা জরিমানার রায় ঘোষণা করেন আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নাসিম আহমেদ।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সৈয়দপুর শহরের কয়া গোলাহাট এলাকার ওয়াপদা মোড়ের খাদিজা ফিলিং স্টেশনের সামনে পুলিশী অভিযানে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক ও পরে একইস্থানে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। দন্ডপ্রাপ্ত ওই মাদক ব্যবসায়ীর নামে সৈয়দপুরসহ বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছেন সৈয়দপুর থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আতাউর রহমান।

পুলিশ জানায়, কয়া গোলাহাট ওয়াপদা মোড় এলাকার বদরুদ্দিনের পুত্র পুলিশের তালিকাভুক্ত চিহৃিত মাদক ব্যবসায়ী বাবু ওরফে জঞ্জালু পুলিশের চোখকে ফাঁকি দিয়ে দেদারছে মাদকের ব্যবসা চালিয়ে আসছে। সোর্সের দেয়া এমন সংবাদের ভিত্তিতে থানা পুলিশ তাঁকে মাদকসহ হাতেনাতে ধরতে ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে। এ কৌশলে ক্রেতা সাজেন সৈয়দপুর থানার সহকারি উপ-পরিদর্শক মো. আখতারুজ্জামান মন্ডল পলাশ। আজ সকাল থেকেই ওই মাদক ব্যবসায়ীর সাথে গাঁজা কেনার জন্য কথাবার্তা চালাতে থাকেন। ওই সহকারি উপ-পরিদর্শক আখতারুজ্জামান পলাশ মাদক ব্যবসায়ী জঞ্জালুকে বলেন ভাই অনেক খোঁজ করেও কোন জায়গায় গাঁজা পাওয়া যাচ্ছেনা। আমার নেশা উঠেছে।

নেশার কারণে কিছুই ভাল লাগছেনা। প্রতি উত্তরে মাদক ব্যবসায়ী জঞ্জালু বলেন আমার কাছেও কোন গাঁজা নেই। তখন ওই এএসআই বলেন একটু উপকার করেন ভাই। বাজার মূল্যের চাইতেও বেশী দাম দিব, তারপরেও আমার গাঁজা লাগবে। কোথায় আসতে হবে আমাকে বলেন আমি আসছি। মাদক ব্যবসায়ীর সাথে এমনই কথা বলে তাঁকে রাজি করলে সে জানায় ওয়াপদা মোড়ের খাদিজা ফিলিং স্টেশনের সামনে তাঁকে সাবধানে আসতে হবে। ওই মাদক ব্যবসায়ীর কথা মত দুপুর দেড়টার দিকে লুঙ্গী ও গেঞ্জি পড়ে সেখানে চলে যান এএসআই আখতারুজ্জামান পলাশ।

১০ মিনিট পর একটি মোটর সাইকেল নিয়ে ওয়াপদা মোড়ের খাদিজা ফিলিং স্টেশনের সামনে কয়াগোলাহাট পশ্চিম পাড়া মোড়ে হাজির হয় মাদক ব্যবসায়ী জঞ্জালু। পরে মোটর সাইকেল থেকে নেমে তার সাথে থাকা একটি পলিথিন থেকে গাঁজা বের করা মাত্রই সেখানে আগে থেকেই সাদা পোশাকে অবস্থান করা থানার উপ-পরিদর্শক মো. সাহিদুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল মাদক ব্যবসায়ী বাবু ওরফে জঞ্জালুকে হাতেনাতে অাটক করা হয়। সাথে সাথে খবর দেয়া হয় ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রট ও সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নাসিম আহমেদকে। পরে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন তিনি। এসময় ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে মাদক ব্যবসার কথা স্বীকার করেন জঞ্জালু।

পরে আদালতের বিচারক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.নাসিম আহমেদ ওই মাদক ব্যবসায়ীকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদানসহ দুই হাজার টাকা জরিমানা করেন। দন্ডপ্রাপ্ত ওই আসামির বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে জানিয়ে তাঁকে আজই নীলফামারী জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ও দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ মো. আতাউর রহমান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here