সৈয়দপুরে মাদকসেবীদের তৎপরতা বৃদ্ধি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি সংঘটিত

0
782
সৈয়দপুরে মাদকসেবীদের তৎপরতা বৃদ্ধি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি সংঘটিত

খবর৭১ঃ

মিজানুর রহমান মিলন, সৈয়দপুর প্রতিনিধিঃ সৈয়দপুরে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে জনগনের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টিতে পুলিশের ব্যস্ততা থাকার সুযোগে বখাটে মাদকসেবীদের তৎপরতা মারাত্মকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। রাতের বেলা শহরে লোক সমাগম না থাকায় ওইসব মাদকসেবীরা অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়েছে।

এরই মধ্যে গতকাল বুধবার রাতে শহরের শহীদ ডা. জিকরুল হক সড়কের পাঁচমাথা মোড় সংলগ্ন পানবাজারে দূটি পান সিগারেটের দোকানে চুরির ঘটনা ঘটেছে। ওই দোকান দুটি থেকে মাদকসেবি চোরেরা পান সিগারেট বেচাকেনার নগদ ১০ হাজার টাকা ও ৮ হাজার টাকা মূল্যের বিভিন্ন ব্রান্ডের সিগারেট নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ব্যবসায়ীদের মাঝে চুরি আতংক বিরাজ করছে। জানা যায়, গতকাল বুধবার দুপুরের পর সরকারি নির্দেশনা মেনে অন্যান্য এলাকার সাথে সাথে পান বাজারের ব্যবসায়ীরাও দোকান বন্ধ করে নিজ নিজ বাসায় চলে যায়। সন্ধ্যার পর শহরে লোক সমাগম কমলেও বাড়তে থাকে মাদকসেবী বখাটেদের তৎপরতা। রাতে শুরু হয় তাদের অবাধ বিচরণ। সুত্র জানায়, ওইসব মাদকসেবিরা রাতে যেকোন সময় ওই পান বাজারের শফিকের পান দোকানের তালা ভেঙ্গে দোকান তছনছ করে। পরে সেখানে থাকা পান বিক্রির ১হাজার ২০০ টাকা হাতিয়ে নেয়। পরে একই স্থানে হাসানের পান সিগারেটের দোকানের কাঠের ঝাপ ভেঙ্গে দোকানে থাকা দশ হাজার টাকা মূল্যের বিভিন্ন ব্রান্ডের সিগারেট ও নগদ ৯ হাজার টাকা নিয়ে সটকে পড়ে।

ভোরবেলা বাজারে আসা লোকজন চুরির বিষয়টি জানতে পারে। সুত্র জানায়, সরকারি নির্দেশনা মেনে শহরে মানুষজনের চলাচল সীমিত হওয়ায় বখাটে মাদকসেবিরা মাদকসেবন করে গোটা শহর দাপিয়ে বেড়ায়। সন্ধ্যার পর তারা বাজারের অলিগলিতে ঘুরতে থাকে এবং নির্জন গভীর রাতে চুরির ঘটনা ঘটায়। চুরির এসব ঘটনায় স্থানীয় ব্যবসায়ীরা চুরি আতংকে রয়েছেন জানিয়ে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, সৈয়দপুর থানা পুলিশ করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে সার্বিক কর্মকান্ডে ব্যস্ত থাকার সুযোগে বখাটে মাদকসবিরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। তারাই মাদকের টাকা যোগাড় করতে ঘটাচ্ছে চুরির ঘটনা। তাদের অভিযোগ শহরের অভ্যন্তরে পুলিশের ফাড়ি থাকলেও রাতের টহলে তাদের তেমন একটা দেখা যায়না।

বিশেষ করে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে শহরের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ ফাড়ির সদস্যদের কোন তৎপরতাই দেখা মিলছেনা। তারা অবিলম্বে বখাটে মাদকসেবিদের গ্রেফতার করে চুরির রহস্য উদঘাটনের দাবি জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে শহরের সদর পুলিশ ফাড়ির পরিদর্শক মো. আব্দুর রহিমের সাথে কথা হলে তিনি বলেন তাঁর অধিনস্থ ফাড়ির সকল সদস্য নিয়মিত টহল ডিউটি পালন করে আসছেন।

চুরির ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করা সহ বখাটে মাদকসেবিদের গ্রেফতারও করা হবে বলে জানান তিনি। সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল হাসনাত খানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন থানা পুলিশ সার্বক্ষনিক দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। তিনি বলেন আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশের টহল ডিউটি বাড়ানো হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here