শৈলকুপায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা

0
209
শৈলকুপায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা

রাব্বুল ইসলাম,ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সাবেক সেনা সদস্যের বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। সে উপজেলার ত্রিবেনী ইউনিয়নের শেখপাড়া গ্রামের বিদ্যুৎ বিশ্বাসের ছেলে। এ ব্যাপারে শৈলকুপা থানায় মামলার প্রস্তুুতি চলছে।

পুলিশ জানায়, বিদ্যুৎ বিশ্বাসের প্রতিবেশি পদমদী গ্রামের গোলাম জোয়াদ্দারের সাথে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে মঙ্গলবার দুপুরে আরাফাতকে কুপিয়ে যখম করা হয়। বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। আরাফাত কুষ্টিয়া রবীন্দ্র মৈত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ও শেখপাড়া গ্রামের কুটিপাড়ার সাবেক সেনাবাহিনীর সদস্য বিদ্যুৎ হোসেনের ছেলে।

গ্রামবাসি সুত্রে জানা যায়,নিহত আরাফাতের পিতা বিদ্যুৎ বিশ্বাস অন্য দুই চাচার জমি কিনে বাড়ি নির্মাণ করেন। ওই জমি কম টাকায় কিনতে চেয়েছিল পাশ্ববর্তী গ্রামের গোলাম জোয়াদ্দার। জমি কিনতে না পেরে বাড়িতে যাতায়াতের পথ নিয়ে প্রায় গোলাম জোয়ারদারের সাথে তর্কবিতর্ক হয় বিদ্যুৎ বিশ্বাসের। মঙ্গলবার দুপরে যাতায়াতের পথ ঘেরাকে কেন্দ্র করে গোলাম জোয়ারদার তার ছেলে উজ্জল ও রাজ্জাকসহ বেশ কয়েকজন অতর্কিত ভাবে আরাফাতের উপর হামলা চালায়। হামলায় গুরুতর আহত হন আরাফাত। প্রথমে কুষ্টিয়া ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। বুধবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।

শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ বজলুর রহমান জানান, জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এই হত্যাকান্ড ঘটেছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here