ফিফা বিশ্বকাপে প্রস্তুত সিলেট

0
202
ফিফা বিশ্বকাপে প্রস্তুত সিলেট
ফিফা বিশ্বকাপে প্রস্তুত সিলেট

খবর ৭১ঃ প্রথমবারের মতো ফিফা বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচ হতে যাচ্ছে সিলেটে। আগামী ২৬ মার্চ সিলেটে আফগানিস্তানের বিপক্ষে হোম ম্যাচে মাঠে নামবে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। প্রথম সাক্ষাতে ১০ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তান তাদের হোম ভেন্যু তাজিকিস্তানের রাজধানী দুশানবেতে ১-০ গোলে হারিয়েছিল লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের। জেলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিতব্য একমাত্র ম্যাচটির জন্য আগেভাগেই প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে আয়োজক সিলেট জেলা ফুটবল এসোসিয়েশন।

কাতার বিশ্বকাপ ও চীন এশিয়ান কাপ বাছাই পর্বে আফগানিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের হোম ম্যাচটি হবে সিলেটে। ২০২২ বিশ^কাপ ফুটবল বাছাই পর্বের এই ম্যাচটি ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান থাকায় বিকল্প ভেন্যু হিসেবে ম্যাচটি ঢাকা থেকে সিলেটে নিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। ওই দিন বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে বসবে শিশু-কিশোরদের মিলনমেলা।

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচকে সামনে রেখে জাতীয় দলের প্রস্তুতি শুরু হবে ঢাকায় ১৫ মার্চ। দিন চারেক ঢাকায় অনুশীলন করেই সিলেট যাবে জামাল ভঁ‚ইয়ারা। কোচ জেমি ডেও সেটাই চাইছেন। সিলেটও এর জন্য তৈরি। অনুশীলনের জন্য দুটি এবং প্রয়োজনে আরো দুটি ভেন্যু ব্যবহার করা যাবে। জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সভাপতি ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সদস্য মাহিউদ্দিন সেলিম বলেন, ‘সিলেট বিকেএসপি ও আবুল মাল আবদুল মুহিত কমপ্লেক্সের মাঠ তৈরি আছে। বিশেষ করে কমপ্লেক্সের মাঠে এবার ২ কোটি টাকা ব্যয়ে ঘাস লাগানো হয়েছে। আশা করছি, এখানে দুদলই অনুশীলন করতে পারবে। এর বাইরে সিলেট ক্যাডেট কলেজ মাঠ, ক্যান্টনমেন্টের মাঠও ব্যবহারের জন্য তৈরি আছে। আশা করছি, অনুশীলনে দল দুটির কোনো সমস্যা হবে না।’

ফুটবলের জন্য সিলেট পয়মন্ত ভেন্যু। এখানে আন্তর্জাতিক ম্যাচগুলোতে দর্শকদের উপচে পড়া ভিড় দেখা যায়। আমাদের এখানে ফুটবল ও ক্রিকেট দুটিতেই দর্শক সমাগম হয়।’ স্টেডিয়ামের বিষয়ে সেলিম বলেন, ‘এখানে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের হোম ভেন্যু করেছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। এরই মধ্যে ব্রাদার্স ইউনিয়ন ও মোহামেডান এখানে খেলে গেছে। তারা মাঠের প্রশংসা করেছে। আশা করি, বাংলাদেশ আফগানিস্তান ম্যাচের ম্যাচ কমিশনারও স্টেডিয়াম দেখে সন্তুষ্ট হবেন।’ তবে এসবের বাইরে একটা জিনিসে ঘাটতি আছে স্টেডিয়ামের। ফিফার ম্যাচ আয়োজনে গ্যালারিতে চেয়ার থাকা বাধ্যতামূলক। সেটারও চেষ্টা চলছে বলে জানান বাফুফের নির্বাহী কমিটির এই সদস্য।

এদিকে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চলমান ওয়ানডে সিরিজের সব ম্যাচই অনুষ্ঠিত হচ্ছে নয়নাভিরাম সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। ক্রিকেট উন্মাদনা শেষ হতে না হতেও ফুটবলের জন্য প্রস্তুত হবে সিলেট। বাংলাদেশ ফুটবল দল এর আগেও সিলেটে খেলেছে। প্রীতি ম্যাচের পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবলের অন্যতম ভেন্যু ছিল সিলেট। এই ভেন্যুতেই সাফ অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জেতে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ৮ ম্যাচের ৪টিই গত বছর খেলেছে বাংলাদেশ। আফগানিস্তান, ভারত ও ওমানের বিপক্ষে ৩টি অ্যাওয়ে আর এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন কাতারের বিপক্ষে ঢাকায় হোম ম্যাচ খেলেছে জামালরা। কিন্তু দলের সংগ্রহ মাত্র ১ পয়েন্ট। সাফল্য বলতে ভারতের মাটিতে ড্র। বাকি থাকা ৪ ম্যাচের ৩টি চলতি বছর দেশের মাটিতে খেলবে কোচ জেমি ডের শিষ্যরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here