ঠাকুরগাঁওয়ে জাতীয় বীমা দিবস পালিত

0
212
ঠাকুরগাঁওয়ে জাতীয় বীমা দিবস পালিত

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ ‘বীমা দিবসে শপথ করি, উন্নত দেশ গড়ি’- এই প্রতিপাদ্যে বিপুল উৎসাহ উদ্দিপনা ও যথাযোগ্য মর্যাদায় ঠাকুরগাঁওয়ে প্রথমবারের মতো জাতীয় বীমা দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে ঠাকুরগাঁওয়ে বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা এবং সচেতনতা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও সকল বীমা কোম্পানির সহযোগিতায় রোববার এসব কর্মসুচি পালিত হয়। দিবসটি উপলক্ষে রোববার সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়।

র‌্যালিটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বিডি হলে গিয়ে শেস হয়। পরে বিডি হলে দিবসটি গুরুত্ব ও তাৎপর্য নিয়ে এক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিতি ছিলেন ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. কে, এম কামরুজ্জামান সেলিম। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক নুর কুতুবুল আলম, প্রেসক্লাব সভাপতি মনসুর আলী, সাবেক জেলা ক্রীড়া কর্মকর্তা আবু মহিউদ্দিন। অনুষ্ঠানে গণউন্নয়ন বীমা কর্পোরেশনের ঠাকুরগাঁও উন্নয়ন ব্যবস্থাপক মোজাফ্ফর হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন মেঘনা লাইফ ইন্সিওরেন্স এর ব্যবস্থাপক ফখরুল ইসলাম, সান লাইফ ইন্সিওরেন্স এর ব্যবস্থাপক কামরুজ্জামান সুনাম প্রমুখ।

বক্তারা জাতীয় বীমা দিবস ঘোষণা করা সরকার ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান। এসময় তারা বীমার গুরুত্ব আরোপ করে সকলকে বীমার আওতার আসার আহবান জানান। সেই সাথে বীমাকারীদের বীমা গ্রহিতাদের আস্থা অর্জনস করে সুনামের সাথে এই পেশায় দেশের উন্নয়নে অংশীদার হবারও আহবান জানান। অনুষ্ঠানে প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা, রাজনীতিক, সাংবাদিক, শিক্ষক, ছাত্রছাত্রী, বীমা কোম্পানির কর্মকর্তা কর্মচারি ও বীমা উন্নয়ন কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও প্রথমবারের মতো জাতীয় বীমা দিবস উপলক্ষে সপ্তাহব্যাপি বীমা সচেতনতা কর্মসুচি পালন করবে জেলা প্রশাসন ও বীমা কোম্পানিগুলো।

উল্লেখ্য, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১ মার্চ ১৯৬০ সালে তৎকালীন আলফা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিতে যোগদান করেছিলেন। এ দিনটিকে স্মরণ করে গত ১৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদ সভায় সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে ১ মার্চ জাতীয় বীমা দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here