তাবলিগের দু’গ্রুপের সংঘাতে অগ্নিদগ্ধ সেই যুবকের মৃত্যু

0
9

খবর৭১ঃতাবলিগের দু’গ্রুপের সংঘাতে কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়ায় দগ্ধ সেই যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার দুপুর ২টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাবলিগ জামাতের সাথী আবদুর রহিম রাজনের (২৭) মৃত্যু হয়।

নিহত আব্দুর রহিম রাজন কটিয়াদী পৌর সদরের পূর্বপাড়া মহল্লার প্রবাসী গোলাম মস্তোফার পুত্র। রাজন তাবলিগের সাদপন্থী সাথী ছিলেন।

জানা গেছে, তাবলিগ জামাতের দুই পক্ষের সংঘাতের জের ধরে গত ১৯ মে রাত ১১টার দিকে কতিপয় দুর্বৃত্ত কটিয়াদী থানার সন্নিকটে সাব-রেজিস্ট্রারের কার্যালয় সংলগ্ন রাস্তায় রাজনের গায়ে তরল দাহ্য পদার্থ ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়।

স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর রাতেই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ ঘটনায় রাজনের মামা মামুনুর রশিদ নয়ন বাদী হয়ে তিনজনের নাম উল্লেখসহ ৪-৫ জন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করে কটিয়াদী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ ঘটনায় পুলিশ মাহমুদুল হাসান সুমন ও মো. সোহেল মিয়া নামে জোবায়েরপন্থী দুই জনকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

রাজনের শশুর হাবিবুর রহমান দুলাল তার জামাতার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে জানান, রাজনকে শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যা করল মানুষরূপী জানোয়ার।

রাজনের একমাত্র সাড়ে তিন বছর বয়সের ছেলে আবু হুজায়ফা ও তার মাকে আমি কি বলে সান্তনা দেব। আমি আল্লাহ এবং সরকারের কাছে এই নির্মম হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই।

হাবিবুর রহমান দুলাল জানান, এ ঘটনায় রাজনের পরিবার ও তার সাথীদের মাঝে চলছে শোকের মাতম। সোমবার বাদএশা ঢাকা কাকরাইল মারকাজ মসজিদে জানাযা শেষে লাশ বাড়িতে এনে মঙ্গলবার পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here