রোজা নিয়ে বিস্ময় শিখর ধাওয়ানের

0
35

খবর ৭১ঃ সারা বিশ্বে একসঙ্গে পালিত হচ্ছে পবিত্র মাহে রমজান। অন্যান্য মুসলমানের মতো আল্লাহর সন্তুষ্টি কামনায় রোজা রাখছেন বিভিন্ন দেশের খেলোয়াড়রাও। দুই দিন আগেই রোজা রেখে খেলায় বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়েছেন আয়াক্সের দুই ফুটবলার। এবার সারা দিন রোজা থেকেও রাতে ম্যাচ খেলায় প্রশংসা কুড়িয়ে নিয়েছেন আফগানিস্তানের দুই ক্রিকেটার মোহাম্মদ নবী ও রশিদ খান।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) এবারের আসরে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলেছেন রশিদ খান ও মোহাম্মদ নবী। রোজা শুরু হয়ে যাওয়ায় দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে এলিমিনেটর ম্যাচটি ইফতারি করে খেলতে হয়েছে তাদের। প্রচণ্ড গরমের মধ্যে সারা দিন রোজা রাখার পর মাঠে নামলেও তাদের পারফরম্যান্সে কোনো প্রভাব পড়েনি।

নবী-রশিদ রোজা রেখেই খেলেছেন জানার পর ম্যাচ শেষে রীতিমতো বিস্ময় প্রকাশ করেন দিল্লির ওপেনার শিখর ধাওয়ান। কেবল তা-ই নয়, এক টুইটার বার্তায় সবাইকে রমজানের শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি আলাদাভাবে নবী-রশিদের প্রশংসা করেছেন ভারতের বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান।

টুইটারে নিজের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট থেকে নবী-রশিদের সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করে ধাওয়ান লেখেন, ‘সবাইকে রামাদান কারিমের শুভেচ্ছা। তাদের নিয়ে খুব গর্ব অনুভব করছি! সারা দিন উপবাসের পর ম্যাচ খেলতে নামা সহজ কিছু নয়। কিন্তু তোমরা কি অনায়াসেই সেটা করে দেখালে! নিজের দেশ এবং পুরো ক্রিকেট বিশ্বের জন্যই এটা দারুণ এক প্রেরণার বিষয়।’

মহান আল্লাহর রহমত কামনা করে ধাওয়ান আরও লিখেছেন, ‘তোমাদের এমন উদ্যম সবাইকে বড় স্বপ্ন দেখতে এবং সেটি অর্জন করে নিতে প্রেরণা দেয়। তোমাদের নিয়ে গর্বিত, ভাইয়েরা। আল্লাহর রহমত যেন সবসময় তোমাদের সাথে থাকে।’
এলিমিনেটরে দিল্লির বিপক্ষে ২ উইকেটে হারলেও ব্যাটে-বলে মোটামুটি সফল ছিলেন নবী। ১৩ বলে ২০ রান করার পর ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ২৯ রান খরচ করেন এই আফগান অলরাউন্ডার।

এদিকে ব্যাট হাতে রানের দেখা না পেলেও বল হাতে দলকে জয়ের আশা দেখিয়েছিলেন রশিদ খান। ৪ ওভারে মাত্র ১৫ রানে ২ উইকেট তুলে নেন হায়দরাবাদের এই আফগান স্পিনার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here