খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল

0
13

খবর ৭১ঃ দলের চেয়ারপারসন কারাবন্দি খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মহিলা আইনজীবী।

শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে একটি মিছিল নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এসে শেষ হয়।

বিক্ষোভ মিছিলে নেতৃত্ব দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

মিছিলে অংশগ্রগ্রহণ করেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুণ রায় চৌধুরী, শামীমা আক্তার শাম্মী, তাহমিনা আক্তার হাশেমী, সেতারা বেগম সেতু, রাফিজা আলম লাকী, নার্গিস পারভীন এলিজা, নাসরিন বেগম, নার্গিস পারভীন মুক্তি, নাদিরা বেগম হ্যাপি, আসমা খাতুন, মোস্তারী আক্তার নূপুর, জোহরা খাতুন জুঁই, কাজী রওশন দীল আফরোজ, ফারহানা আক্তার লুবনা, শাহীন সুলতানা খুকী, শামসুন্নাহার, তামান্না খানম, জেবুন্নেসা খানম, হাবিবা কাদের মিলি প্রমুখ।

মিছিল শেষে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, খালেদা জিয়া প্রতিহিংসার বিচারে আজ কারাবন্দি হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। ভোট চুরি নিয়ে কেউ যেন টু শব্দ করতে না পারে এবং বাধাহীনভাবে ক্ষমতা দখল করা যায় সেজন্যই সুপরিকল্পিতভাবে খালেদা জিয়াকে ১০ মাস আগেই কারাবন্দি করা হয়েছে।

তিনি বলেন, যে মিথ্যা মামলায় অন্যরা জামিন পেয়েছেন, সেই একই মামলায় বেগম জিয়াকে কারাগারে বন্দি করে রাখার উদ্দেশ্যই হলো আওয়ামী অবৈধ ক্ষমতা দীর্ঘমেয়াদে ভোগ করা।

‘একজন নির্দোষ জনপ্রিয় নেত্রী যিনি গুরুতর অসুস্থ, তাকে সুচিকিৎসার সুযোগ থেকে বঞ্চিত করে কারাগারে আটকিয়ে রেখে যে অমানবিক আচরণ করা হচ্ছে, সে জন্য এ অবৈধ শাসকগোষ্ঠীকে জনগণের কাছে জবাবদিহি করতেই হবে। জনগণ বেগম জিয়াকে কারামুক্ত করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।’

এ সময় তিনি অবিলম্বে খালেদা জিয়াকে তার পছন্দের হাসপাতালে সুচিকিৎসার সুযোগসহ নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here