নানা আয়োজনে সৈয়দপুরে পবিত্র আশুরা পালিত, কারবালা ও ইমামবাড়া মানুষের ঢল

0
66
নানা আয়োজনে সৈয়দপুরে পবিত্র আশুরা পালিত, কারবালা ও ইমামবাড়া মানুষের ঢল

মিজানুর রহমান মিলন, সৈয়দপুরঃ
ত্যাগের মহিমায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভির্যে সৈয়দপুরে নানা আয়োজনে মঙ্গলবার পবিত্র আশুরা পালিত হয়েছে। সুন্নী ও শিয়া,সম্প্রদায় পৃথক পৃথকভাবে দিবসটি পালন করে। সুন্নী মুসলমানরা সৈয়দপুরের বিভিন্ন ইমামবাড়া,বাসাবাড়ি,মসজিদ মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন এলাকায় দোয়া খায়ের,কোরআনখানি,
মিলাদ মাহফিল দুস্থদের মাঝে খাবার ও সর্বত্র শরবত বিতরণের মাধ্যমে আশুরার কর্মসুচি পালন করে। এছাড়া আশুরা উপলক্ষে রোজা পালনও করে তারা। অপরদিকে ধর্মীয় আলোচনা,দোয়া খায়ের মিলাদ মাহফিল,
শোক মিছিলের মধ্যদিয়ে শিয়া সম্প্রদায় আশুরা পালন করেছে।

মঙ্গলবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত কয়েকটি গ্রুপে ভাগ হয়ে সৈয়দপুরের ৩৯টি ইমামবাড়ার খলিফা ও পাইকদের ওস্তাদরা পুলিশের কঠোর নিরাপত্তা প্রহরায় স্মরণীয় কারবালায় গিয়ে আশুরার সমাপ্তি ঘটায়। এদিন একই সময় দুলদুল ঘোড়ার সাজে সজ্জিত মান্নতি পাইকরাও কারবালা প্রান্তরে সাত বার ঘুরে শরীরে পেঁচানো বিভিন্ন রঙয়ের সুতার দড়ি ও পিতলের ছোট ছোট ঘন্টা খুলে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসে। কর্মসুচি পালনে যাতে কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সে জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে কারবালা,শিয়া মসজিদ এলাকাসহ গোটা শহরে ব্যাপক নিরাপত্তা মুলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। শহরের গুরুত্বপুর্ণ পয়েন্টে মোতায়েন করা হয় অতিরিক্ত পুলিশ। পবিত্র আশুরা পালন উপলক্ষে আশুরার আগেরদিন থেকে শুরু করে আশুরার দিন গভীর রাত পর্যন্ত পুলিশ সদস্যরা টহল দেয় গোটা শহরে। নীলফামারী জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হেড-কোয়ার্টার) মো. রবিউল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দলকেও সার্বক্ষনিক তৎপর থাকতে দেখা যায়। টহল দেয় র‍্যাব-১৩ নীলফামারী ক্যাম্পের সদস্যরা। এদিকে দিবসটি পালন উপলক্ষে ধর্মপ্রাণ মুসলিম সম্প্রদায় কারবালা ফেরত মানুষজনের মাঝে শরবত বিতরণ করেছে।

এছাড়া অসহায় ও দুস্থদের মাঝে খাবার পরিবেশন ও তবারক বিতরণ করে। আয়োজন করা হয় মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের। অনেকে রোজা পর্যন্ত রেখেছেন। আশুরা উপলক্ষে ইমামবাড়া থেকে বের করা তাজিয়া নিয়ে শহর প্রদক্ষিন করা হয়। প্রতিটি ইমামবাড়া ও শহরের মোড়ে মোড়ে চলে ঢোল বাজানো ও লাঠি খেলা। এসময় গোটা শহরে মানুষজনের ঢল নামে। বিশেষ করে বিভিন্ন বয়সী নারীদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত। গভীর রাত পর্যন্ত চলে এসব আয়োজন। এসব স্থানে পুলিশও ছিল সতর্ক অবস্থানে। এছাড়া প্রতিটি ইমামবাড়া এলাকায় বসে মহররম মেলা।

মেলা প্রাঙ্গনে ছিল রকমারি দোকান,নাগর দোলাসহ বিভিন্ন বিনোদনমুলক ব্যবস্থা। এদিকে আশুরার দিন বিকেলে শহরের পার্বতিপুর সড়কের শিয়া মসজিদ কলোনী থেকে বের হয় শোক মিছিল। উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা থেকে আসা শিয়া সম্প্রদায়ের সদস্যরা শোক মিছিলসহ তাদের অন্যান্য কর্মসুচিতে অংশ নেয়। আঞ্জুমানে আব্বাসিয়ার পক্ষ থেকে শোক মিছিলটি শিয়া মসজিদ থেকে বের হয়ে পার্বতিপুর রোড হয়ে আবারও শিয়া মসজিদে গিয়ে শেষ হয়।এরআগে শিয়া মসজিদ কলোনী এলাকায় আঞ্জুমানে আব্বাসিয়া সংগঠনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় ধর্মীয় সভা ও দোয়া মাহফিল। এতে বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা শিয়া সম্প্রদায়ের সদস্যরা অংশ নেয়। আশুরা উপলক্ষে নিরাপত্তার বিষয়ে জানতে চাইলে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহজাহান পাশা বলেন,আশুরা পালিত

হয় ভিন্ন আয়োজনে। দিবসটি উপলক্ষে সৈয়দপুর শহরে লোক সমাগমও ঘটে প্রচুর। তাই মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে তাদের আশুরা উদযাপন করতে পারে সেজন্য পুলিশের পক্ষ থেকে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here