দুবাইয়ে খুব শিগ্রই প্রবাসীদের জন্যে আসছে এন আই ডি কার্ড

0
44
দুবাইয়ে খুব শিগ্রই প্রবাসীদের জন্যে আসছে এন আই ডি কার্ড
ছবিঃ তিশা সেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত।

খবর৭১ঃ

তিশা সেন, সংযুক্ত আরব আমিরাতঃ বিশ্বের অন্যান্য উন্নত দেশের মতো বাংলাদেশের স্মার্ট আইডি কার্ড দিয়ে সকল কাজ করা যাবে। বর্তমানে প্রায় প্রতিটি সরকারী কাজে, যেকোন ক্রয়-বিক্রয়ে এবং ভোটার রেজিস্ট্রেশন গুরুত্বপূর্ণ ২২টি ক্ষেত্রে এই কার্ড অতি প্রয়োজনীয়। কার্ড পেতে দীর্ঘ একটি প্রক্রিয়া ও সময়ের প্রয়োজন। সময়ের অভাবে দেশে গিয়ে প্রবাসীদের পক্ষে এই কার্ড গ্রহন প্রায় অসম্ভব। প্রবাসিদের স্মার্ট আইডি কার্ড সহজে পেতে প্রবাসিদের দোরগোড়ায় আসবে কর্তৃপক্ষ। শীঘ্রই এই কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার নুরুল হুদা। সোমবার বাংলাদেশ কনসুলেট জেনারেল দুবাই আয়োজিত প্রবাসিদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা জানান। সভায় শুরুতে এনআইডির বিভিন্ন দিক নিয়ে প্রবাসিদের উদ্দেশে কথা বলেন আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশর রাষ্ট্রদূত ডা. মোহাম্মদ ইমরান। কনসুলেট সভাকক্ষে আয়োজিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন খান।

কনসুলেটের দূতালয় প্রধান প্রবাস লামারংয়ের পরিচালনায় বিভিন্ন প্রশ্ন করেন প্রকৌশলী আবু জাফর চৌধুরী, অধ্যাপক এম,এ,সবুর, ড.রেজা খাঁন, কাজী গুলশান আরা, আইয়ুব আলী বাবুল, কাজী মোহাম্মদ আলী, প্রকৌশলী জিল্লুর রহমান, আবুহেনা চৌধুরী, হাজী শফিকুল ইসলাম, সাইফুদ্দীন আহমেদ, মীর আহমেদ, কাউছার নাজ নাসের, সাংবাদিক লুৎফুর রহমান সহ আরো অনেকে। নতুন ন্যাশনাল আইডি কার্ডের ক্ষেত্রে প্রবাসীদের অনলাইনের মাধ্যমে ফরম পূরণ করে কনস্যুলেট অফিস বা দূতাবাস জমা দিতে হবে। এরপর দূতাবাস বাংলাদেশে তাদের স্থায়ী ঠিকানা অনুযায়ী জেলাভিত্তিক প্রাথমিক তালিকা প্রস্তুত করে পাঠাবে ইসির কাছে। ইসি জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার মাধ্যমে আবেদনকারীর স্থায়ী ঠিকানায় তা যাচাই-বাছাই করার পর প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয়পত্র দেওয়া হবে। পুরনো জাতীয় পরিচয়পত্রে যদি কোন ভুল থাকে সেই ক্ষেত্রে তাদের স্মার্ট কার্ড কী এডিট করা যাবে এমন প্রশ্নের উত্তরে প্রধান নির্বাচন কমিশনার জানান, ছোট খাটো এসব ভুল অবশ্যই পরিবর্তন করা যাবে তবে যারা পুরো নাম, বা জন্মতারিখ পাল্টাতে চান, তা করা সম্ভব না।

খুব শিগগিরই প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয় পত্র প্রদান করা হবে সেই লক্ষ্যে দূতাবাস ও কনস্যুলেট জেনারেল কার্যালয়গুলোতে এ বিষয়ে বিশেষ ডেস্ক স্থাপন করা হবে এবং ইসির ঢাকা থেকে প্রতিনিধি দল পাঠানোর পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। তিনি আরো বলেন, রোহিঙ্গারা পাসপোর্ট পেয়ে যে বিতর্কের সৃষ্টি করেছে সেটি যেন জাতীয় পরিচয়পত্রে থাকে না সে জন্য আমাদের সাথে দেশপ্রেমি সকল প্রবাসিদেরও সহযোগিতা লাগবে। সভাপতির বক্তব্যে কনসাল জেনারেল ইকবাল হোসন খান বলেন, কমিউনিটির কেউ যদি অন্যায়ভাবে কারো জাতীয় পরিচয়পত্র প্রাপ্তিতে তদবির করেন তাহলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণে বাংলাদেশ কনসুলেট জেনারেল প্রস্তুত থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here