ঝালকাঠিতে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’ মোকাবেলায় প্রস্তুত ২৭৪ সাইক্লোন সেন্টার; হুমকির মুখে ভেরিবাধ

0
240
ঝালকাঠিতে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’ মোকাবেলায় প্রস্তুত ২৭৪ সাইক্লোন সেন্টার; হুমকির মুখে ভেরিবাধ
ছবিঃ রতন আচার্য্য, ঝলকাঠি প্রতিনিধি।

খবর৭১ঃ

রতন আচার্য্য, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’ মোকাবেলায় আগাম প্রস্তুতি নিয়েছে ঝালকাঠির জেলা প্রশাসন। সোমবার বিকেলে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় নদী বেষ্টিত উপকূলীয় জেলা ঝালকাঠিতে ঘূর্ণিঝড় আঘাতহানার আগেই শতর্ক থাকার আহ্বান জেলা প্রসাশক মো. জোহর আলী। সভায় জানানো হয় ইতোমধ্যে জেলার ২৭৪টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

সুগন্ধা ও বিষখালী নদী তীরের মানুষকে আবহাওয়ার সংকেত অনুযায়ী নিরাপদে সাইক্লোন শেল্টারে আশ্রয় নেওয়ার প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে। দুর্যোগ মোকাবেলায় পর্যাপ্ত খাদ্যসামগ্রী মজুদ রাখা হয়েছে। বর্তমানে করোকালের ত্রাণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে, প্রয়োজনে ত্রাণ সহায়তা কার্যক্রম আরো বাড়ানো হবে। সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আরিফুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সরদার মো. শাহ আলমসহ প্রশাসন, ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা ও রেডক্রিসেন্ট সদস্যরা। এদিকে ঝালকাঠি জেলার কাঠালিয়া উপজেলার ভেরিবাধটি হুমকির মুখে রয়েছে।ভেরিবাধের বিভিন্ন স্থানে ভেঙ্গে গেছে, ঘূর্ণিঝড়ে শহরে হুহু করে পানি ঢোকার সম্ভবনা রয়েছে। এ উপজেলার আমুয়া বাজার, লঞ্চঘাট সহ বিভিন্ন স্থানের ভেরিবাধ ভাঙ্গা অবস্থায় রয়েছে।

ঝালকাঠির সাধারন মানুষের মধ্যে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’ নিয়ে তেমন সচেতনতা দেখা যাচ্ছেনা। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাইক্লোন শেল্টরে যাওয়ার জন্য মাইকিং করা হচ্ছে, কিন্তু সাধারন মানুষ এখন পর্যন্ত সাইক্লোন শেল্টরে যাওয়া শুরু করেনি। বর্তমানে ঝালকাঠির আবহাওয়া মেঘাচ্ছন্ন রয়েছে মাঝে মাঝে গুরিগুরি বৃষ্টি হচ্ছে এবং থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। জেলা প্রশাসকমোঃজোহর আলী জানিয়েছেন, ঘূণিঝড় মোকাবেলায় সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here