ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশের স্বপ্ন এঁকেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান…. শেখ আফিল উদ্দিন এমপি

0
65
ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশের স্বপ্ন এঁকেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান.... শেখ আফিল উদ্দিন এমপি

শেখ কাজিম উদ্দন, বেনাপোল : যশোর-১(শার্শা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শেখ আফিল উদ্দিন বলেন. ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশের স্বপ্ন এঁকেছিলেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বাংলাদেশকে উন্নয়নের জন্য কৃষিতে বিপ্লবের কথা বলেছিলেন তিনি। বলেছিলেন, ত্রিশ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অংকিত বাংলাদেশের স্বাধীনতা আমার কাছে তখনি প্রকৃত স্বাধীনতা হয়ে উঠবে যেদিন বাংলার কৃষক মজুর ও দুঃখী মানুষের সকল দুঃখের অবসান হবে। রবিবার (৯-ফেব্রুয়ারী) বেলা ১১টার সময় শার্শা উপজেলা পরিষদের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত ২০১৯-২০ অর্থবছরে খরিফ-১ মৌসুমের কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বঙ্গবন্ধুর হৃদয়স্পর্ষী কথাগুলী বলেন তিনি।

শার্শা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সৌতম কুমার মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত উক্ত সার ও বীজ বিতরণ অনুষ্ঠানে শেখ আফিল উদ্দিন এমপি আরো বলেন কৃষিতে বিপ্লব আনার লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার পরপরই ডাক দিয়েছিলেন সবুজ বিপ্লবের। তাঁর অদম্য ইচ্ছা ছিল যেকোনো উপায়ে কৃষকদের স্বার্থ রক্ষা করা। কেননা কৃষকই এ দেশের আসল নায়ক। যারা মাথার ঘাম পায়ে ফেলে আমাদের সবার অন্ন জোগায়। তাই, কৃষকের উন্নয়ন হলে দেশের উন্নয়ন সময়ের ব্যাপার। বঙ্গবন্ধু ভাবতেন এতদিন আমরা শোষণে নিষ্পেষণে আমাদের মেধা প্রতিভাকে কাজে লাগাতে পারিনি। এখন সময় এসেছে নিজেদের দেশে নিজেদের মেধা ও দক্ষতাকে পুরোপুরি কাজে লাগিয়ে বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়ানো। তাই, যেদিন কৃষকের উন্নয়ন আর অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি বেগবান হবে তখন গোটা বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে সম্মুখপানে। আমরা তখন গর্বের সঙ্গে বলতে পারব এইতো আমার স্বনির্ভর সোনার বাংলাদেশ।

শার্শা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে অনুষ্টিত উক্ত অনুষ্ঠানে সাংসদ শেখ আফিল উদ্দিন কৃষকদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, দীর্ঘ ১১ বছর যাবত বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কণ্যা তথা দেশের প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা বাবার সেই লালিত স্বপ্ন তীলে তীলে বাস্তবায়ন করে চলেছেন। সকল ধরণের সুযোগ সুবিধা দিয়ে এগিয়ে নিয়ে চলেছেন কৃষকদের। আজ তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জণ করেছে। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ এখন বিশ্বের রোল মডেল।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু, শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও যশোর জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, কোষাধ্যক্ষ ওয়াহিদুজ্জামান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান, আলেয়া ফেরদৌস, শার্শা সদর ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন প্রমুখ। এসময় শার্শা উপজেলার সকল ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষক উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here