এক দিনেই সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরল ২৪ প্রাণ

0
32
এক দিনেই সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরল ২৪ প্রাণ

খবর৭১ঃ ঈদুল আজহার ছুটির রেশ এখনো কাটেনি। ছুটি উপভোগ করতে রাজধানীর মিরপুরের কিছু বাসিন্দা মিলে কক্সবাজার ও বান্দরবান ভ্রমণের আয়োজন করেন। কিন্তু ভ্রমণের শুরুতেই বাসের চালকের ঘুমের কারণে চিরঘুমে চলে গেলেন তাদের আট জন। গত বুধবার রাত ২টার দিকে মিরপুর থেকে পিকনিকের দুটি বাস কক্সবাজারের উদ্দেশে রওনা হয়। বৃহস্পতিবার ভোর ৬টার দিকে ফেনীতে পৌঁছার পর চালক ঘুমের কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেললে প্রাইম প্লাসের রিজার্ভ করা বাসটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের লেমুয়ার স্টার লাইন ব্রিক ফিল্ডের কাছে এ দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই ছয় জন প্রাণ হারান। অন্য দুই জন হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন আরো ১৬ জন। এসব ঘটনায় আহত হয়েছেন শতাধিক।

ফেনী ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক তৌফিকুল ইসলাম ভূঞা জানান, ধারণা করা হচ্ছে, চালক ঘুম নিয়ে চালাতে গিয়ে বাসের নিয়ন্ত্রণ হারান। এতে মহাসড়কের পাশে একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা লাগলে পিকনিকের বাসটি দুর্ঘটনায় পড়ে। নিহতরা হলেন বিক্রমপুরের অপু (৩৫), মিরপুরের ইকবাল (২৮), মাদারীপুরের রিপন (৩০), নারায়ণগঞ্জের মুন্না খান (৩০), মিরপুরের শামীম (৩০), ছাগলনাইয়ার রাধানগর এলাকার শাহাদাত হোসেন (২৮) ও বিক্রমপুরের সুজন মিয়া। এক জনের পরিচয় পাওয়া যায়নি। ফেনী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) আবু তাহের পাটোয়ারী বলেন, এই দুর্ঘটনায় আহতদের উন্নত চিকিত্সার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তাদের মধ্যে ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। পিকনিকের আয়োজক মিরপুরের পাপ্পু জানান, ‘ভোরে যাত্রা বিরতির সময় একটি রেস্তোরাঁয় যাত্রীরা সবাই নাস্তা করেন। পরে সবাই বাসে উঠে ঘুমিয়ে পড়ার পর বাসটি দুর্ঘটনায় পড়ে।’

চার বাসের সংঘর্ষ :গতকাল বেলা ৩টার দিকে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলায় বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিমপাড়ে এক সঙ্গে চার বাসের চতুর্মুখী সংঘর্ষ হয়েছে। এতে দুই জন নিহত ও অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে। হতাহতদের পরিচয় জানা যায়নি। বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জহুরুল ইসলাম ও সিরাজগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের ওয়্যার হাউজ ইন্সপেক্টর মো. হামিম জানান, ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গগামী হানিফ পরিবহনের একটি বাস কামারখন্দের কোনাবাড়ি এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা ফাইভ স্টার পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় পেছন থেকে ডিপজল ও এনা পরিবহনের দুটি বাস হানিফ পরিবহনের বাসের সঙ্গে ধাক্কা খায়। চতুর্মুখী এ সংঘর্ষে হানিফ ও ফাইভ স্টার পরিবহনের বাস দুটি দুমড়ে মুচড়ে যায়। স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না হাসপাতালে গিয়ে আহতদের চিকিত্সাসেবা নিশ্চিত করতে চিকিত্সকদের নির্দেশ দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here